চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলাদেশ বেতারে বঙ্গবন্ধুর খুনিরা

১৯৭৫।ভোর রাত সাড়ে চারটার দিকে শাহবাগের বাংলাদেশ বেতার অফিসের বাইরে গুলির শব্দ পাওয়া যায়। রাত ২ টায় বেতারের সেদিনকার অনুষ্ঠান শেষ করে রাতের সেশনে উপস্থিত ছিলেন বেতার প্রকৌশলী শিফট ইনচার্জ প্রণব চন্দ্র রায়, যিনি বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার সাক্ষী। কিছু সময় পর সামরিক বাহিনীর লোকেরা বেতার অফিসে প্রবেশ করে। ঢুকেই তারা নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত পুলিশ সদস্যদের নিরস্ত্র করে। এরপর সেনারা বেতারের কন্ট্রোলরুমে প্রবেশ করে। সেনাদের একজন নিজেকে মেজর ডালিম বলে পরিচয় দেয় এবং বেতারের দায়িত্বে কে উপস্থিত আছে জানতে চায়। সেনারা সকলে অস্ত্র…

দীর্ঘসময়ের পরিকল্পনা ও ষড়যন্ত্রের ফল বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড হঠাৎ করে সংঘটিত কোন ঘটনা নয়। দীর্ঘসময়ের পরিকল্পনা ও ষড়যন্ত্রের ফলাফল এই গর্হিত ঘটনা। এটি ভাবা ভুল হবে যে, গুটিকয় সামরিক অফিসারের ক্ষোভের কারনে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছিল। এই ভয়ংকর ঘটনায় দেশীয় ষড়যন্ত্রী যেমন জড়িত ছিল, তেমনি ছিল বিদেশী সুবিধাভোগী। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড ছিল পাকিস্তান, আমেরিকা, চীন, সৌদি আরব এবং দেশীয় সুবিধাভোগী, পাকিস্তানপন্থী ও আওয়ামীলীগ বিরোধীদের সম্মিলিত একটি ষড়যন্ত্রের ফলশ্রুতি। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডে পাকিস্তানের উদ্দেশ্য ছিল প্রতিশোধ ও তাঁবেদারী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা; আমেরিকা, চীন…

অতঃপর বাঘের খোলসে লুকিয়ে থাকা বিড়ালের আত্মসমর্পণ

১৪ ডিসেম্বর: মিত্রবাহিনীর তুমুল আক্রমণে সারা পূর্ব বাঙলায় পাকিস্তানী সৈন্যরা কোনঠাসা হয়ে গেছে। ভারতীয় বিমানবাহিনী ও মিত্রবাহিনীর গোলন্দাজরা পাকিস্তানী সামরিক বাহিনীর লক্ষ্যবস্তুতে বিরতিহীনভাবে বোম্বিং করছে। পরাজয় নিশ্চিত বুঝতে পেরে সকালে গর্ভনর হাউজে পূর্ব পাকিস্তানের গর্ভনর ডা: মালিক তার ১১ মন্ত্রীসহ পদত্যাগ করে। সামরিকভাবে মিত্রবাহিনীর সামনে টিকতে না পেরে ও সকল আলোচনা ব্যর্থ হওয়ায় দুপুরের কিছুটা আগে পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া তারবার্তা পাঠিয়ে ডা: মালিক ও জেনারেল নিয়াজীকে আত্মসমর্পনের প্রস্তুতি গ্রহণ করার কথা…

রোহিঙ্গা ইস্যু ও আমাদের যা করণীয় হতে পারে

মায়ানমারে আজ প্রায় শতবর্ষ ধরে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে জাতিগত বিভেদ চলে আসছে সংখ্যাগুরু বর্মিদের। মায়ানমার সরকারের মতে, রোহিঙ্গারা হল বাঙালি, যারা বর্তমানে অবৈধভাবে মায়ানমারে বসবাস করছে। তবে প্রকৃত ইতিহাস ভিন্ন কথা বলে। ইতিহাস বলে, রোহিঙ্গারা মায়ামারে কয়েক শতাব্দী ধরে বসবাস করে আসছে। সপ্তম-অষ্টম শতাব্দীতে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির উদ্ভব হয়। প্রাথমিকভাবে মধ্যপ্রাচ্যীয় মুসলমান ও স্থানীয় আরাকানীদের সংমিশ্রণে রোহিঙ্গা জাতির উদ্ভব। পরবর্তীতে চাঁটগাইয়া, রাখাইন, আরাকানী, বর্মিজ, বাঙালি, ভারতীয়, মধ্যপ্রাচ্য, মধ্য এশিয়া ও…

মুক্তিযুদ্ধে জার্মান বন্ধু উল্লি বেইয়ার

একাত্তরে বাঙালির মুক্তিযুদ্ধ সারা পৃথিবীর সভ্য মানুষদের নাড়া দিয়েছিল; বিশেষতঃ বাঙালি জাতির বিরুদ্ধে পাকিস্তানিদের পরিচালিত গণহত্যা। সারা পৃথিবীর বিবেকবান মানুষরা তাদের অবস্থান হতে বাঙালির মুক্তিযুদ্ধের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন। আজ তেমনই একজন বিবেকবানের কথা বলবো; বাঙালির জন্মবন্ধু জার্মান বংশোদ্ভূত উল্লি বেইয়ার। তার কথা বলতে গেলে একটি দেশের কথাও বলতে হবে- দেশটির নাম পাপুয়া নিউগিনি।পাপুয়া নিউগিনি নামে একটি দেশ আছে, এই কথা হয়তো আমরা অনেকেই জানি না। দেশটি অবস্থিত ওশেনিয়ায় মানে অস্ট্রেলিয়া মহাদেশে, রাজধানী পোর্ট মর্সবি। দেশটার…

অপারেশন সার্চলাইটঃ একটি পরিকল্পিত গণহত্যার সূচনা

২৫ মার্চ, ১৯৭১ তারিখের শেষ প্রহরে ‘অপারেশন সার্চলাইটের’ মধ্য দিয়ে পাকিস্তান সামরিক বাহিনী বাঙালি গণহত্যা ও নির্যাতন শুরু করে। পাকিস্তানিদের এই বর্বরতায় বাংলাদেশের কমপক্ষে ত্রিশ লক্ষ মানুষ প্রাণ হারায়, কমপক্ষে পাঁচ লক্ষ নারী ধর্ষণ ও নির্মম পাশবিক নির্যাতনের শিকার, প্রায় এক কোটি মানুষ প্রাণ বাঁচাতে ভারতে আশ্রয় গ্রহণ করে। আর এসবের পরিণতিতে নয় মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ ১৬ ডিসেম্বর, ১৯৭১ তারিখে বিজয় অর্জন করে। বাংলাদেশের মানুষের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের এই গণহত্যা ও নির্যাতন ছিল পরিকল্পিত; তথ্য-প্রমাণ হতে এই বিষয়টি…

বঙ্গবন্ধু না, যুদ্ধাপরাধীদের ক্ষমা-পুর্নবাসন করেছিল জিয়া

যুদ্ধাপরাধ হল কোন দেশের বা, জাতির উপর যুদ্ধ চাপিযে দেয়া, যুদ্ধের সময় নিরীহ মানুষকে হত্যা করা, ধষর্ণ করা, বন্দী করা, জোরপূর্বক কাজে নিয়োগ করা, আত্মসমর্পন করা যোদ্ধাকে হত্যা বা নির্যাতন করা, সম্পত্তি বিনষ্ট করা ও প্রকৃতির ক্ষতি সাধন করা। (চতুর্থ জেনেভা কনভেনশনে গৃহীত সিদ্ধান্তের ১৪৭ অনুচ্ছেদ)।১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি দেশে ফিরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রেসকোর্স ময়দানে প্রদত্ত ঘোষণায় স্পষ্ট করে বলেন- একাত্তরের যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হবেই। বঙ্গবন্ধু যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের বিষয়ে আন্তরিক ও দৃঢ় অবস্থান গ্রহন করেছিলেন; তাঁর বিভিন্ন…

কল্পিত বিহারী গণহত্যাঃ একাত্তরের পরাজিত শক্তির অপকৌশল

বিভিন্ন সময় আমরা দেখেছি, একাত্তরের পরাজিত শক্তি- জামায়াত ও পাকিস্তানি থেকে শুরু করে ডানপন্থী এবং অতি-সুশীলরা দাবি করেন, একাত্তরে বিহারীদের উপর গণহত্যা চালানো হয়েছিল। এ নিয়ে দেশে বিদেশে এই প্রো-পাকিস্তানি গং নানান সময়ে বিচার দাবি করেছিল। তাদের দাবি, মুক্তিযুদ্ধের সময়ে ৫ লক্ষ বিহারীকে হত্যা করা হয়েছিলো।এই সংখ্যাটি দেখে মনে পড়লো, ১৯৭৪ সালে করাচি থেকে প্রকাশিত কুতুবউদ্দিন আজিজ নামের এক পাকিস্তানী সাংবাদিকের সম্পাদিত বই 'ব্লাড এন্ড টিয়ার্সের' কথা। এই বইটি হামুদুর রহমান কমিশন রিপোর্টেও উল্লেখ করা হয়েছে। এই বইটিতে বলা আছেঃ আওয়ামী…

কল্পিত বিহারী গণহত্যাঃ একাত্তরের পরাজিত শক্তির অপকৌশল

বিভিন্ন সময় আমরা দেখেছি, একাত্তরের পরাজিত শক্তি- জামায়াত ও পাকিস্তানি থেকে শুরু করে ডানপন্থী এবং অতি-সুশীলরা দাবি করেন, একাত্তরে বিহারীদের উপর গণহত্যা চালানো হয়েছিল। এ নিয়ে দেশে বিদেশে এই প্রো-পাকিস্তানি গং নানান সময়ে বিচার দাবি করেছিল। তাদের দাবি, মুক্তিযুদ্ধের সময়ে ৫ লক্ষ বিহারীকে হত্যা করা হয়েছিলো।এই সংখ্যাটি দেখে মনে পড়লো, ১৯৭৪ সালে করাচি থেকে প্রকাশিত কুতুবউদ্দিন আজিজ নামের এক পাকিস্তানী সাংবাদিকের সম্পাদিত বই 'ব্লাড এন্ড টিয়ার্সের' কথা। এই বইটি হামুদুর রহমান কমিশন রিপোর্টেও উল্লেখ করা হয়েছে। এই বইটিতে বলা আছেঃ আওয়ামী…

রবি ঠাকুর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় তাঁর বিরোধিতা: একটি মিথ

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে নিয়ে পূর্ববঙ্গে তথা বাংলাদেশে একটি মিথ প্রচলিত আছে যে, তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার বিরোধিতা করেছিলেন।এই মিথ প্রথম শুনি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী হিসেবে থাকার সময়। সে সময় একজন জামাত ঘরানার শিক্ষক ক্লাসে একবার বলে বসলেন- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর পূর্ববঙ্গের বাঙালিদের ঘৃণা করতেন, তিনি পূর্ববঙ্গের উন্নতির মাইলফলক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরোধিতা করেছিলেন।ক্লাস শেষে সেই শিক্ষককে জিজ্ঞেস করেছিলাম, আপনার এই দাবির তথ্যসূত্র কি, উনি উত্তরে বলেছিলেন, পরে জানাবেন; কিন্তু তার এই 'পরে' আর আসেনি, উনি তথ্যসূত্র…