চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিরিয়াল কিলারের নামে স্টেডিয়ামের গ্যালারি

সাবেক খেলোয়াড় ও বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গের নামে স্টেডিয়ামের বিশেষ স্ট্যান্ড নামকরণের নজির বিশ্বের সব দেশেই আছে। স্ট্যান্ড-কাণ্ডে এবার অন্যরকম এক ঘটনার জেরে বিতর্কের জন্ম দিয়েছে ইংল্যান্ডের একটি ফুটবল ক্লাব। সাউথ এন্ড ইউনাইটেড নামের ক্লাবটি একজন সিরিয়াল কিলার তথা পেশাদার খুনির নামেই যে স্টেডিয়ামের স্ট্যান্ড নামকরণ করে বসেছিল।

সাউথ এন্ড ইউনাইটেড ইংল্যান্ডের একটি পঞ্চম স্তরের ফুটবল ক্লাব। সম্প্রতি দলটি গিলবার্ট এবং রোজ এস্টেট এজেন্টদের সাথে একটি স্পন্সরশিপ চুক্তি করেছিল। যে চুক্তির অংশ হিসেবে হোম ভেন্যুর পশ্চিম অংশের নাম ‘গিলবার্ট এবং রোজ ওয়েস্ট এন্ড’ রাখে ক্লাবটি।

Reneta June

এমন সিদ্ধান্তে ক্ষেপে যান ক্লাবটির ভক্তরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদে ঝড় তোলেন। কারণ স্ট্যান্ডের নামে থাকা রোজ ওয়েস্ট একজন সিরিয়াল কিলার হিসেবে পরিচিত। ১৯৬০-এর দশক থেকে শুরু করে ২০ বছরের মতো গ্লচেস্টারে নিজের বাড়িতে একাধিক হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন এই নারী।

বিজ্ঞাপন

ন্যাক্কারজনক এসব হত্যাকাণ্ড ঘটাতে রোজকে সহযোগিতা করেছেন স্বামী ফ্রেড। ১৯৯৫ সালে ১০টি খুনের ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে এখন পর্যন্ত কারাগারে বন্দী আছেন রোজ। জেলের ভেতরে আত্মহত্যা করে সেবছরই মারা যান তার স্বামী ফ্রেড।

ভক্তদের প্রতিবাদের মুখে অবশ্য স্ট্যান্ডের নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সাউথ এন্ড ক্লাবটি। খুব দ্রুতই নাম পরিবর্তন করে ‘গিলবার্ট এবং স্পন্সর্ড ওয়েস্ট স্ট্যান্ড’ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ক্লাবের চেয়ারম্যান রন মার্টিন।

‘আমার ধারণা, আমাদের বাণিজ্যিক বিভাগের লোকেরা সেই ট্র্যাজেডির সময় জন্মগ্রহণ করেননি এবং সে কারণেই ঘটনাটি ঘটেছে। ব্যাপারটি দুর্ভাগ্যজনক, এটা ক্লাবের জন্য মোটেই ভালো নয়। এমন ঘটনার জন্য আমি সকলের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমি বিব্রত এবং এটি সত্যিই হতাশাজনক।’

‘সত্যি বলতে, এই দায়িত্বটা সিনিয়র ম্যানেজমেন্টের নেয়া উচিত ছিল, কিন্তু তা হয়নি। বরং এটি গতকাল রাতে আমার নজরে আসে। আমরা স্ট্যান্ডটির নাম পরিবর্তন করে ‘গিলবার্ট এবং স্পন্সর্ড ওয়েস্ট স্ট্যান্ড’ রাখতে চলেছি। এটা নিয়ে দলের সিইও টম লরেন্সের সাথে কথা হয়েছে এবং আমরা অবশ্যই নামটি পরিবর্তন করবো।’