চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কষ্টার্জিত জয়ে টিকে থাকল বুরকিনা ফাসো, ক্যামেরুন সবার উপরে

আফ্রিকান নেশন্স কাপ

আসরে শুরুতে ম্যাচ হেরে ছিটকে পড়ার শঙ্কা ছিল। কোভিড আক্রান্ত হয়ে ছিলেন না ফরোয়ার্ড বারট্রান্ড ট্রাওরি। এতো বাধার পরেও ম্যাচের ফল নিজেদের দিকে টানল আফ্রিকান নেশন্স কাপের বুরকিনা ফাসো। জয়ের পাশাপাশি বাঁচিয়ে রাখলো শেষ ষোলোতে ওঠার পথও।

আফ্রিকান নেশন্স কাপের গ্রুপ ‘এ’ লিগ পর্বের ম্যাচে কেপ ভার্দেকে ১-০ গোলে হারিয়েছে বুরকিনা ফাসো। হাড্ডাহাডি লড়াইয়ের ম্যাচে একমাত্র গোল পেয়েছেন বাউরিমা হাসান বান্ডে।

গ্রুপের দুটি ম্যাচে জয় পাওয়া ক্যামেরুন আছে সবার উপরে। ৬ পয়েন্ট নিয়ে ইতোমধ্যে পরবর্তী রাউন্ড নিশ্চিত করেছে দলটি। টেবিলের দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে যথাক্রমে তিন পয়েন্ট নিয়ে আছে বুরকিনা ফাসো এবং কেপ ভার্দে। টেবিলের দ্বিতীয় হয়ে সেরা ষোলোতে পৌঁছাতে পরবর্তী ম্যাচে ইথিওপিয়াকে হারাতে হবে বুরকিনাদের। তবুও তাদের তাকিয়ে থাকতে হবে ক্যামেরুন-কেপ ভার্দে ম্যাচের দিকে।

২০১৭ ও ২০১৯ নেশন্স কাপে খেলতে না পারা কেপ ভার্দে এবার ফিরেছে লড়াইয়ে। শুরুতে ইথিওপিয়াকে হারিয়ে দারুণ শুরু করলেও পরের ম্যাচেই ধাক্কা খেলো কেপ ভার্দে।

বিজ্ঞাপন

মাঠে ৫৬ শতাংশ বল দখলে রেখে কেপরা গোলে শট নিতে পেরেছিল ৯ বার, লক্ষ্যে ছিল ২ বার। বিপরীতে ১৫ বার গোলে শট নিয়েছিল বুরকিনা। লক্ষ্যে ছিল ৪টি শট।

আসরে টিকে থাকতে জয় পেতেই হতো বুরকিনা ফাসোর। প্রথমার্ধ্বে বেশ কবার সুযোগ করেও কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পাচ্ছিল না তারা। ম্যাচের পনের মিনিটে পেনাল্টির জোড়ালো আবেদনেও তাদের পক্ষে সাড়া দেয়নি রেফারি।

শেষে বিরতির ছয় মিনিট আগে ভাঙ্গে ভার্দেদের রক্ষণভাগ। দুর্দান্ত এক ক্রস থেকে দারুণ এক গোল উপহার দেন বান্ডে।

এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বুরকিনা। পরের অর্ধ্বে বেশ কবার আক্রমণ পাল্টা আক্রমণ হলেও জালের দেখা পায়নি কোনো দল।

একই গ্রুপের অন্য ম্যাচে ইথিওপিয়া বড় ব্যবধানে হারিয়েছে ক্যামেরুন। পাঁচ গোলের ম্যাচে টেবিলের শীর্ষ দলটি চারবার প্রতিপক্ষের জাল খুঁজেছে। ইথিওপিয়ার হয়ে একমাত্র গোল করেন দাওয়া দুখেল।

বিজ্ঞাপন