চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৭ নাগরিক আটক

কক্সবাজারের টেকনাফে  তিন লাখ ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৭ নাগরিককে আটক করেছে কোস্টগার্ড। এসময় ইয়াবা পাচার কাজে ব্যবহৃত ট্রলারটি জব্দ করা হয়।

বুধবার ভোরে টেকনাফের নাফ নদীস্থ কাটাবুনিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ইয়াবাগুলোর মূল্য কমপক্ষে ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

বিজ্ঞাপন

টেকনাফস্থ কোস্টগার্ডের ষ্টেশনের ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল বলেন, কোস্টগার্ড নিয়মিত টহলকালে কাটাবুনিয়া এলাকায় নাইট ভিশন যন্ত্রের মাধ্যমে একটি ট্রলার দেখতে পায়। তখন সন্দেহ হলে কোস্টগার্ডের টহল দলটি সামনে এগিয়ে ট্রলারটি থামাতে বলে। কিন্তু ট্রলারটি না থামিয়ে কোস্টগার্ডের টহল দলের উপর গুলতি নিক্ষেপ করতে থাকে।

বিজ্ঞাপন

পরে কোস্টগার্ড গতিপথ পরিবর্তন করে ট্রলারটি ধরতে সক্ষম হয়। এরপর ট্রলারটি তল্লাশিকালে ২টি জেরিক্যান পায়। জেরিক্যান দুটি কেটে মোট ২৮টি প্যাকেট পাওয়া যায়। যার মধ্যে ২ লাখ ৮০ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট লুকায়িত ছিল।

এসময় ইয়াবা পাচার কাজে নিয়োজিত মিয়ানমারের ৭ জন নাগরিক আটক করা হয়। তাদেরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়; তারা নিয়মিত এভাবে মিয়ানমার থেকে ইয়াবা এনে বাংলাদেশে পাচার করে।

বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেঃ কমান্ডার এম হামিদুল ইসলাম বলেন, আটকেরা প্রত্যেকেই মায়ানমারের নাগরিক এবং দীর্ঘদিন ধরেই তারা সমুদ্রপথে এভাবেই ইয়াবা পাচার করে আসছে। পরবর্তীতে আটক ইয়াবা পাচারকারীদের ইয়াবা ও কাঠের নৌকাসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড এর আওতাভুক্ত এলাকা সমূহে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ, জননিরাপত্তার পাশাপাশি বনদস্যুতা, ডাকাতি দমন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ রোধে কোস্ট গার্ডের জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করে, নিয়মিত অভিযান অব্যাহত আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।