চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাষ্ট্রীয় শোক: জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার ‘নোটিশ পায়নি’ বিদ্যালয়

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার অধিকাংশ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাষ্ট্রীয় শোক পালন ও জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত দেখা যায়নি।

শিক্ষকরা অভিযোগ করেছেন: উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তারা কেউ জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার কোনো নোটিশ দেননি। এছাড়া মোবাইল ফোন ও ই-মেইল করেও এ বিষয়ে জানানো হয়নি। এ কারণে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করা হয়নি। এ দায়ভার আমাদের নয়। শিক্ষা অফিসারদের।

জানা গেছে, বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু ওমানের সুলতান কাবুস বিন সাইদ আল সাইদের ইন্তেকালে গত রোববার রাতে সোমবার ১৩ জানুয়ারি বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয়ভাবে ১ দিনের শোক পালন ও জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার নিদের্শ দেয়া হয় উপ-সচিব মোঃ সাইদুর রহমানের স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে। কিন্তু প্রজ্ঞাপনের বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শাহীনুর ইসলাম ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শাহনেওয়াজ পারভীন দায়িত্ব অবহেলা করে সরকারি শোক পালন ও পতাকা অর্ধনমিত রাখার নির্দেশনা অধিকাংশ স্কুলগুলোতে জানাননি।

সোমবার সকালে সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার রুহুলী উচ্চ বিদ্যালয়, কয়েড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রুহুলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রুহুলী দাখিল মাদরাসা, মাটিকাটা উচ্চ বিদ্যালয়সহ অনেক স্কুলে পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়নি। এ স্কুলগুলোতে প্রতিদিনের মতোই জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়।

রুহুলী দাখিল মাদরাসার সুপার রাজ মাহমুদ বলেন: আজ সোমবার কী জন্য রাষ্ট্রীয় শোক পালন ও জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে তা জানি না। উপজেলা শিক্ষা অফিস আমাদেরকে কোন নোটিশ দেয়নি। আপনাদের (সংবাদকর্মীদের) মাধ্যমে তা জানতে পারলাম। সরকারি প্রোগামগুলো সম্পর্কে অবহিত না করলে এতে করে বিভ্রান্তিতে পড়তে হয়।

বিজ্ঞাপন

রুহুলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাম্মী আক্তার বলেন: জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার বিষয়টা জানি না। এ সংক্রান্ত কোনো নোটিশও আমরা পাইনি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শাহীনুর ইসলাম বলেন: রাষ্ট্রীয়ভাবে শোক পালন ও জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার ব্যাপারে সকল মাধ্যমিক স্কুলগুলোতে জানানো হয়েছে। এরপরও কেন তারা অর্ধনমিত করেনি তা তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শাহনেওয়াজ বলেন: সব প্রাথমিক স্কুলগুলোর প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদেরসহ সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে। কিছু মিসটেক হতে পারে। তা ছাড়াও ফেসবুকের মাধ্যমেও জানানো হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ও সহকারী (ভূমি) কমিশনার মো. আসলাম হোসাইন বলেন: উপজেলা মাধ্যমিক ও শিক্ষা দপ্তরের কর্মকর্তাদের শোক পালন ও পতাকা অর্ধনমিত রাখার বিষয়ে অবহিত করা হয়েছে।

শেয়ার করুন: