চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যেসব পণ্যের দাম বাড়বে

২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে বেশ কিছুপণ্য ও সেবার মূল্য বৃদ্ধির প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। সেখানে দেশীয় শিল্পকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ‘অর্থনৈতিক উত্তরণ ও ভবিষ্যৎ পথপরিক্রমা’ শিরোনামে ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকা বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী। এটি ক্ষমতাসীন সরকারের চলতি মেয়াদের দ্বিতীয় এবং দেশের ৪৯তম বাজেট।

বিজ্ঞাপন

এক নজরে যে সব পণ্যের দাম বাড়তে পারে:

বাজেটে কিছু পণ্যের শুল্ক বাড়ানোর প্রস্তাব করায় এসব পণ্যের দাম বাড়বে। দেশীয় শিল্প রক্ষায় যে সকল পণ্যের আমদানি শুল্ক-কর বাড়ানো হয়েছে, সেগুলো হলো- আমদানি করা দুধ, দুধজাত পণ্য, বডি স্প্রে, গাড়ি, গাড়ি রেজিষ্ট্রেশন ব্যয়, বিদেশি এসি, জুস, সাইকেল, বিদেশি মোটর সাইকেল, অনলাইন কেনাকাটা, অনলাইন খাবার, বিদেশী টিভি।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া দাম বাড়বে টায়ার, বিদেশী কসমেটিক, সিগারেট, ইন্টারনেট খরচ, মোবাইলে কথা বলার খরচ, রং, সোডিয়াম সালফেট, কম্প্রেসার শিল্প, স্ক্রু, বর্ণিশ, আয়রণ স্টিল,আমদানি করা চকলেট, আলোকসজ্জা, আমদানি করা অ্যালকোহল ইত্যাদি।

বাজেটে কিছু পণ্যের শুল্ক বাড়ানোর প্রস্তাব করায় এসব পণ্যের দাম বাড়বে।শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত লঞ্চের টিকিট খরচ বাড়বে। আগে ৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর ছিল, নতুন অর্থবছরে তা বাড়িয়ে ১০ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। চার্টার্ড বিমান ও হেলিকপ্টার ভাড়ার ওপর সম্পূরক শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে ৩০ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

পেঁয়াজ আমদানিতে কিছুটা শুল্ক আরোপ হবে।

আসবাব কেনায় মূসক বেড়েছে। ৫ থেকে সাড়ে ৭ শতাংশ করা হয়েছে। এছাড়া, মধুর বাল্ক আমদানি শুল্ক বাড়ছে। বিদেশি মধুর দাম বাড়বে।