চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘বিআইডব্লিউটিএ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডে’র বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদ

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের অঙ্গসংগঠন ‘বিআইডব্লিউটিএ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডকে’’ ভুঁইফোড় সংগঠন আখ্যা দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, মিথ্যাচার, কুৎসা রটানো ও বানোয়াট তথ্য দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

একইসাথে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ-বিআইডব্লিউটিএ’কে এর সাথে জড়িয়ে নানা রকমের অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এসব ঘটনার প্রতিবাদে ‘বিআইডব্লিউটিএ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড’, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্মদের উদ্যোগে মতিঝিলে বিআইডব্লিউটিএ এর প্রধান কার্যালয়ের সামনে বৃহস্পতিবার মানববন্ধন করেছে।

বিজ্ঞাপন

‘মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড বিআইডব্লিউটিএ’র কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক ও সদস্য-সচিবসহ অন্যান্য নেত্রীবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা বলেন, বিআইডব্লিউটিএ’র প্রধান কার্যালয়ে অবস্থিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে স্বাধীনতাবিরোধী একটি চক্র। তারা নিজেদের স্বার্থ সিদ্ধি করার জন্য মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডকে ভূঁইফোড় আখ্যা দিয়ে এর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারা বিভিন্ন গণমাধ্যমে ঢালাওভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছে যে, বিআইডব্লিউটিএ’র একটি কক্ষ জবরদখল করে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সদস্য সচিব এবং বিআইডব্লিউটিএ’র সিবিএ’র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, বন্দর ও পরিবহন বিভাগের সহকারী (টাস্কফোর্স) নাজমুল হুদা সংগঠনটি পরিচালনা করছেন, যা একবারেই অবাস্তব ও ভিত্তিহীন। বিআইডব্লিউটিএ সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ণ অধিদপ্তর।

বিজ্ঞাপন

‘‘এখানে কক্ষ জবরদখল করার কোনো সুযোগ নাই। প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে, বিআইডব্লিউটিএ’র ৪র্থ তলায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড কাউন্সিলের নামে একটি কক্ষ বরাদ্ধ ছিলো। এখান থেকে বিআইডব্লিউটিএ’তে কর্মরত বীর মুক্তিযোদ্ধারা সাংগঠনিক কার্যক্রম চালাতেন। যাদের মধ্যে একজন সাবেক সচিবসহ অনেক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাও ছিলেন।

বিআইডব্লিউটিএ’তে কর্মরত বীর মুক্তিযোদ্ধারা যখন অবসরে চলে যান তখন মুক্তিযোদ্ধাদের নামে বরাদ্ধকৃত কক্ষটি বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়াম্যান মহোদয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডকে সাময়িকভাবে ব্যবহারের জন্য অনুমতি প্রদান করেন। কাজেই যারা জবরদখলের নামে অপপ্রচার চালাচ্ছেন তারা নিছক মিথ্যাচার করছে। স্বাধীনতাবিরোধী চক্রটি ঈর্ষান্বিত হয়ে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সদস্য-সচিব নাজমুল হুদাসহ সন্তান ও প্রজন্মের বিরুদ্ধে বিভিন্নভাবে অপপ্রচার ও মিথ্যাচার করছে।’’

বক্তারা আরো বলেন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালানো এই অপশক্তি স্বাধীনতার বিরোধীতা করেছে। তারা যেমন দেশের স্বাধীনতা মানতে পারেননি, তেমনি স্বাধীনতার মহানায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করেছে। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধুর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও বিভিন্ন সময় নানাভাবে হত্যার চেষ্টা করেছে এই অপশক্তি।

সারাদেশে মুক্তিযোদ্ধের আদর্শে বিশ্বাসীদেরসহ মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের সদস্যদেরও নানাভাবে হয়রানি, তাদের ওপর হামলা-মামলা ও হত্যার মতো ঘটনা ঘটিয়েছে। যারা মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের প্রাণের সংগঠনকে ভুঁইফোড় সংগঠন বলে আখ্যা দেয় তারা আসলে দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে রুখতে এরা এখনো দেশবিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত। বিআইডব্লিউটিএ’তেও যে তাদের কার্যক্রম বিদ্যমান তার প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে।

এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মানববন্ধন শেষে বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

মানববন্ধনে বিআইডব্লিউটিএ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড বরিশাল শাখার আহ্বায়ক ও সদস্য-সচিব, সদরঘাট শাখার আহ্বায়ক ও সদস্য-সচিব নারায়নগঞ্জ শাখার আহ্বায়ক ও সদস্য-সচিবসহ সারাদেশ থেকে আগত নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।