চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কান ঘেঁষা জয়ে হাসি ফিরেছে কোহলির মুখে

শুরুতে সূর্যকুমার-আয়ারের ঝড়, পরে ভূবনেশ্বর-পান্ডিয়া-চাহালের মাপা বোলিং, কোহলিকে নতুন প্রাণ দিয়েছে দারুণ এক জয়। চতুর্থ টি-টুয়েন্টিতে ইংল্যান্ডকে ৮ রানে হারিয়ে সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে ভারত।

আহমেদাবাদে নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে শুরুতে ব্যাট করে নির্ধারিত ওভারে ৮ উইকেটে ১৮৫ রানের বড় সংগ্রহই গড়ে ভারত। জবাব দিতে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৮ উইকেটে ১৭৭ রান পর্যন্ত যেতে পারে ইংল্যান্ড।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

পাঁচ ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজে এখন ২-২এ সমতা। শনিবার সিরিজ ফয়সালার ম্যাচে নামবেন কোহলি ও মরগান।

রোহিত শর্মা ১২ বলে ১২, লোকেশ রাহুল ১৭ বলে ১৪, বিরাট কোহলি ৫ বলে ১ রানে যখন ব্যর্থ। তখন উইকেটে দাঁড়িয়ে যান তিনে নামা সূর্যকুমার। তুলে নেন প্রথম ফিফটি।

সূর্যকুমার ৩১ বলে ৫৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেছেন। ৬ চর ও ৩ ছক্কায় সাজানো। মিডলে রিশভ পান্ট ২৩ বলে ৩০ ও শেষে আয়ার ১৮ বলে ৩৭ রানের ঝড় তোলেন ৫ চার এক ছয়ে।

বিজ্ঞাপন

সঙ্গে পান্ডিয়ার ৮ বলে ১১, শার্দূল ঠাকুরের ৪ বলে অপরাজিত ১০ দুইশর কাছাকাছি নেয় স্বাগতিকদের।

জফরা আর্চার ৩৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে সেরা। একটি করে উইকেট নিয়েছেন আদিল, উড, স্টোকস ও কারেন।

জবাব দিতে নেমে জেসন রয়ের ২৭ বলে ৪০, ডেভিড মালানের ১৭ বলে ১৪, জনি বেয়ারস্টোর ১৯ বলে ২৫ রানে পথে থাকে সফরকারীরা। মাঝে বেন স্টোকসের ৪ চার ও ৩ ছক্কায় ২৩ বলে তোলা ৪৬ রানে জয়ের আশাই জাগে ইংলিশদের।

শেষ ৪ ওভারে ইংল্যান্ডের দরকার ছিল ৪৬ রান। স্টোকস ও মরগান তখনও উইকেটে। ১৭তম ওভারে এসে প্রথম দুই বলে দুজনকেই ফিরিয়ে শার্দূল ম্যাচ হেলে দেন ভারতের দিকে।

শেষ ওভারে ইংল্যান্ডের দরকার পড়ে ২৩ রান। শার্দূলের করা ওই ওভারের প্রথম ৩ বলে ১৩ রান নিয়ে ফেলে ইংলিশরা। কিন্তু ঘুরে দাঁড়িয়ে শেষ ৩ বলে ১ রানের বেশি নিতে দেননি শার্দূল।

৪২ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন শার্দূল। ২টি করে উইকেট পান্ডিয়া ও চাহালের, ভূবনেশ্বরের ১টি। বিশেষ করে বলতে হবে পান্ডিয়ার কথা, ৪ ওভারে মাত্র ১৬ রান খরচ করেছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন