চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার ঘোষণা

অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী হয়ে, ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করার মূল টার্গেট নিয়ে আওয়ামী লীগের ২০তম সম্মেলনের ঘোষণাপত্র তৈরি হচ্ছে। জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ও আগামী জাতীয় নির্বাচনের বিষয়ও থাকবে এবারের ঘোষণাপত্রে।

আওয়ামী লীগের প্রতিটি জাতীয় সম্মেলনে একটি ঘোষণা পত্র থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় ২০তম জাতীয় সম্মেলনে ঘোষণাপত্র নিয়ে ঘোষণাপত্র উপ-কমিটি কাজ করছে।

ঘোষণাপত্র উপ-কমিটির আহ্বায়ক, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, শেখ ফজলুল করিম সেলিম। তিনি বলেন, এবারের ঘোষণাপত্রে সরকার হিসেবে আওয়ামী লীগের সাফল্য যেমন থাকবে তেমনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে, ১৯তম জাতীয় সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যে ঘোষণাপত্র ছিলো তার সঙ্গে আরো অনেক কিছু যুক্ত হবে।

শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেন, আমাদের যেনো পরনির্ভরশীল হতে না হয়, আমরা যেন নিজের পায়ের উপর দাঁড়াতে পারি এবং একটি আত্মনির্ভরশীল জাতি হিসেবে বিশ্বের দরবোরে যেন মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারি সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে জাতীয় সম্মেলনের ঘোষণা পত্র তৈরি করা হয়েছে।

Advertisement

তিনি এও জানান যে, স্বপ্ন আর আদর্শকে ধারণ করে স্বাধীন হয়েছিলো বাংলাদেশ তা যেন সব সময় সমুন্নত থাকে এবং সাংবিধানিক ভাবে দেশ পরিচালিত হয় সে বিষয়ও থাকবে ঘোষণাপত্রে।

ফজলুল করিম সেলিম আরো বলেন, অবৈধভাবে যেন কেউ ক্ষমতা দখল করতে না পারে যে পথও কিন্তু আমরা সৃষ্টি করেছি। নির্বাচনের মাধ্যমে সাংবিধানিকভাবে সরকার পরিবর্তন হবে। অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক সর্বক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়তে চেয়েছেন সেই স্বপ্নকে গড়াই আমাদের লক্ষ্য।

সেই লক্ষ্যকে সামনে নিয়ে আমরা এ ঘোষণাপত্র এবং আগামী নির্বাচনের ইশতেহার জনগণের সামনে অানবো। হয়তো ইশতেহারে নতুন আরো কিছু আরো যোগ হতে পারে।

এবারের ঘোষণাপত্রের মধ্যে দিয়ে আওয়ামী লীগ এবং আওয়ামী লীগ সরকারের প্রতি দেশবাসীর যে প্রত্যাশা তা প্রতিফলিত হবে বলে মনে করছে ঘোষণাপত্র উপ-কমিটি।