চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

হতাশায় নিমজ্জিত ক্যারিবীয় ক্রিকেটাররা

পুরানের অকপট স্বীকারোক্তি 

Nagod
Bkash July

‘নিজেদের ভেতর আমরা হতাশ হতে যাচ্ছি। এমনটাই হওয়ার কথা। আমরা প্রতিদিন নিজেদের মেলে ধরতে পারি না। সবাই যেভাবে পারফর্ম করতে চায়, সেভাবে পারফর্ম করতে পারি না।’

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টিতে ৯০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারের পর এভাবেই দলের হতাশা প্রকাশ করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক নিকোলাস পুরান।

ক্যারিবীয় দলের ভেতরকার কঠিন বাস্তবতাকে তুলে ধরে তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বিশৃঙ্খল ছিলাম। নিজেদের ভেতর যখন আমরা আলোচনা করি, একই ভুল নিয়ে বারবার কথা বলি। যখনই ক্রিকেট মাঠে আসি, তখনই মনে হয় নিজেদের হতাশ করছি। পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আমরা সক্ষম হইনি।’

কিংসটনে হওয়া সিরিজের দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টিতে আগে ব্যাট করা কিউইরা ৫ উইকেটে ২১৫ রানের বড় স্কোর পায়। জবাবে স্বাগতিকরা ৯ উইকেটে ১২৫ রানের বেশি তুলতে পারেনি। এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতে যাওয়া নিউজিল্যান্ড ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল।

টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ক্যারিবীয়দের এমন বাজে পারফরম্যান্স বড় দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। পুরানের কণ্ঠে হতাশা ঝরার পাশাপাশি লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকারের ইঙ্গিতও মিলেছে।

‘এই মুহূর্তে কোনোকিছুই আমাদের অনুকূলে যাচ্ছে না। ব্যাপারটা বেশ কঠিন হয়ে যাচ্ছে। তবে আমরা যতো বেশি ক্রিকেট খেলব, আমাদের পারফরম্যান্স বাড়বে। বাস্তবতা মেনে নিতে হবে। লড়াই চালাতে হবে। আমরা একটি নতুন দল।’

‘আমরা প্রতিটা ম্যাচে এসে জিততে পারি না। কঠিন সময়ে আমাদের একটি দল হয়ে একসঙ্গে লেগে থাকতে হবে। আমরা প্রতি দুই দিন পরপর ক্রিকেট খেলছি। এটা ছেলেদের জন্য সহজ নয়।’

দলের পারফরম্যান্স নিয়ে হতাশা প্রকাশ করলেও ক্রিকেটারদের পক্ষেই নিজের অবস্থান দৃঢ়ভাবে জানান দিলেন পুরান।

‘ছেলেরা আসলে কঠিন পরিস্থিতির বিরুদ্ধে লড়াই করছে। এতে আমি আনন্দিত। ক্রিকেট মাঠে এসে প্রতিবার জেতা মোটেও সহজ নয়। বিশেষ করে যখন আপনার হাতে যখন পর্যাপ্ত খেলোয়াড় নেই। ১৫ জনের স্কোয়াডের ভেতর চারজনই ইনজুরিগ্রস্ত। তাই আমি ছেলেদের জন্য গর্বিত।’

BSH
Bellow Post-Green View