চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Cable

ইংল্যান্ড-ভারত টেস্টে বর্ণবাদ: তদন্তে এজবাস্টন কর্মকর্তারা

Nagod
Bkash July

এজবাস্টন টেস্টের তৃতীয় দিন শেষ করেই যারা খবরের শিরোনাম করেছিলেন ‘জয়ের সুবাস পাচ্ছে ভারত’ চতুর্থ দিন শেষে সেই শিরোনাম উল্টাতে বাধ্য হচ্ছেন তারা। ম্যাককালাম-বেন স্টোকসে এ এক অন্য ইংল্যান্ড দল। যারা প্রতিপক্ষের চোখ রাঙানির বিপরীতে পাল্টা হুঙ্কার দেয়। এজবাস্টন টেস্ট জয় থেকে মাত্র ১১৯ রান দূরে ইংল্যান্ড। ৭৬ রানে জো রুট ও ৭২ রানে অপরাজিত আছেন বেয়ারস্টো। তবে সেসব ছাপিয়ে এজবাস্টনের চতুর্থ দিনের শিরোনাম বর্ণবাদ। যার তদন্তে নেমেছে এজবাস্টন কর্মকর্তারা।

Reneta June

ইয়র্কশায়ারের সাবেক ক্রিকেটার আজিম রফিক এক টুইট বার্তায় অভিযোগ করেন, এজবাস্টনে চতুর্থ দিনে ভিড়ের মধ্যে বর্ণবাদ ও শ্লীলতাহানির মতো ঘটনা ঘটেছে। এছাড়াও সোমবার সন্ধ্যার পর থেকে যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ কিছু বর্ণবাদের অভিযোগ পাওয়া যায়। যার ফলে তিনি তার টুইটারে লিখেন, এসব পড়া খুবই হতাশাজনক।

বিষয়টি এজবাস্টন কর্তৃপক্ষের নজরে পড়লে দুঃখ প্রকাশ করে তারা জানিয়েছেন খুব শিগগিরই এই ঘটনার তদন্ত করা হবে ও অভিযুক্তদের শাস্তির আওতায় আনা হবে।

‘আমরা এটি জেনে খুবই দুঃখিত। যাইহোক, এই আচরণকে আমরা ক্ষমা করব না। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তদন্ত করব।’

এর আগে ইয়র্কশায়ার গ্রাউন্ড কর্মকর্তারা ‘এজবাস্টন ফর এভরিওয়ান’ প্রকাশ করে সমর্থকদের স্বাগত জানিয়েছিল। কেননা সম্প্রতি মাঠের বাইরে বেশকিছু অপ্রীতিকর ঘটনায় জড়িয়েছে ইংলিশ উগ্র সমর্থকরা। যার প্রভাবে মাঠে আসাতে দ্বিধায় পড়েছে ভারতীয় সমর্থকরা। মূলত ভারতীয় সমর্থকদের মাঠে টানতে স্টেডিয়ামটিকে সবার জন্য নিরাপদ বলে তাদের আশ্বস্ত করেছিল এজবাস্টন কর্তৃপক্ষ।

প্রতিশ্রুতি দেয়ার পরও মাঠের এমন ঘটনায় বেশ অস্বস্তিতে পড়েছে এজবাস্টন কর্মকর্তারা। বর্ণবাদের শিকার হওয়া এক ভারতীয় সমর্থক গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন পরিস্থিতির কথা।

‘শুরুর দিকে পরিস্থিতি বেশ স্বাভাবিক ছিল। ম্যাচ শেষ হওয়ার দেড় ঘণ্টা আগে পরিস্থিতি ভীতিকর হতে শুরু করে। এটা এমন পর্যায়ে পৌঁছে যে তারা এক পর্যায়ে তারা আমাদের দিকে ইশারা করছিল। আমাদের দিকে তাকাচ্ছিল এবং আপত্তিকর অঙ্গভঙ্গি করছিল। আমাদের জাতিগত গালিগালাজ করা হয়। আমরা স্টেডিয়াম কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছিলাম কিন্তু তারা কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে আমাদের আসনে বসতে বলেছিল।

এই ঘটনা জানার পর ইসিবি তাদের গভর্নিং বডির অফিসিয়াল টুইটার এক বিবৃতিতে জাতিগত নির্যাতনের অভিযোগে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

‘আজকের টেস্ট ম্যাচে বর্ণবাদী নির্যাতনের খবর শুনে আমরা খুবই উদ্বিগ্ন। আমরা এজবাস্টনের সহকর্মীদের সাথে যোগাযোগ করছি, যারা তদন্ত করে এর ব্যবস্থা নিবে। ক্রিকেটে বর্ণবাদের কোনো স্থান নেই।’

BSH
Bellow Post-Green View