চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘চ্যানেল আই ডিজিটাল মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড’র দ্বিতীয় আসর মার্চে

প্রথমবার আয়োজনে ব্যাপক সাড়া পাওয়ার পর দ্বিতীয়বারের মত শুরু হলো ‘চ্যানেল আই ডিজিটাল মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড’ এর কার্যক্রম

প্রথমবার আয়োজনে ব্যাপক সাড়া পাওয়ার পর দ্বিতীয়বারের মত শুরু হলো ‘চ্যানেল আই ডিজিটাল মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড’ এর কার্যক্রম। আইসিটি ডিভিশনের পৃষ্ঠপোষকতা ও নিবেদনে এবারের অনুষ্ঠানের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে থাকছে ‘স্ন্যাককিপার’, পাওয়ার্ড বাই ঐক্য ডট কম ডট বিডি। 

গত বছর প্রথমবারের মত ডিজিটাল ও সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মকে কেন্দ্র করে এই অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানটি শুরু করে চ্যানেল আই। প্রথম আয়োজনে অনলাইন ও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ব্যাপক সারা ফেলে অনুষ্ঠানটি।

জুড়ি বোর্ডের বিচারে ও দর্শকদের অনলাইন ভোটের মাধ্যমে প্রথম আসরে মোট ২৩টি ক্যাটাগরিতে প্রদান করা হয় এ পুরস্কার। এবারও চ্যানেল আই চত্বরে জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে। পুরস্কার প্রদানের পাশাপাশি পুরো অনুষ্ঠানজুড়ে থাকবে নানা ধরনের বিনোদনমূলক পরিবেশনা।

এ উপলক্ষে চ্যানেল আই কার্যালয়ে সোমবার (৪ অক্টোবর) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন চ্যানেল আইয়ের পরিচালক ও বার্তা প্রধান শাইখ সিরাজ, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক এমপি, আইসিটি ডিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ, স্ন্যাককিপারের ব্যবস্থপনা পরিচালক সোহেল ইবনে সাত্তার। এছাড়া ভিজুয়্যালি অংশ নেন ঐক্য ফাউন্ডেশনের সভাপতি শাহীন আক্তার রেনী।

বিজ্ঞাপন

সংবাদ সম্মেলনে অনুষ্ঠানটি সম্পর্কে শাইখ সিরাজ বিস্তারিত জানান। এ সময় তিনি বলেন, ২০২১ এর ১ জানুয়ারি থেকে ২০২১ এর ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ডিজিটাল প্লাটফর্মে সম্প্রচারিত নাটক, টেলিফিল্ম, চলচ্চিত্র, সংগীতসহ অন্যান্য ক্যাটাগরি থেকে অ্যাওয়ার্ডের ক্যাটাগরিগুলো নির্বাচিত করা হবে। যা ২০২২ সালের মার্চের কোনো এক সময়ে অ্যাওয়ার্ডটি প্রদান করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের উন্নয়নে আইসিটি ডিভিশন সূচনা থেকেই অগ্রগামী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। তারুণ্য নির্ভর এই অনুষ্ঠানে আইসিটি ডিভিশনের সম্পৃক্ততা নিঃসন্দেহে তরুণদের বিশেষভাবে অনুপ্রাণিত করবে। সেই সাথে অনুষ্ঠানটিকে নিয়ে যাবে অনন্য এক উচ্চতায়।

অনুষ্ঠানে সম্পৃক্ততা সম্পর্কে স্ন্যাককিপারের ব্যবস্থপনা পরিচালক সোহেল সাত্তার চ্যানেল আই ও আইসিটি ডিভিশনকে ধন্যবাদ জানান। আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হাইটেক পর্ক-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ এবং ভিজ্যুয়াল মাধ্যমে ঐক্য ফাউন্ডেশনের সভাপতি শাহীন আক্তার রেনী।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হাইটেকপর্ক-এর পরিচালক (টেকনিক্যাল) সৈয়দ জহিরুল ইসলাম, সহকারী পরিচালক (সংগ্রহ) মো. মাহফুজুল কবির এবং মার্কেটিং কনসালটেন্ট তামজিদ বিন আহমেদ।

বিজ্ঞাপন