চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘মেয়েটিকে অনেকটা নেহা কক্করের মতো লাগে!’

নেহা কক্কর। বলিউডের জনপ্রিয় তারকা কণ্ঠশিল্পী। তার গাওয়া অসংখ্য গান তরুণ প্রজন্মের মুখে মুখে। কণ্ঠের চেয়ে কোনো অংশে কম আলোচিত নন ব্যক্তি নেহা। এবার এই তারকা শিল্পীর চেহারার সাথে ২০১৪ সালের ‘ভিট চ্যানেল আই টপ মডেল’ খ্যাত জেবা আনিকার মিল খুঁজে পেয়েছেন একাধিক দর্শক!

দেখতে হুবুহু না হলেও অনেকটা নেহা কক্করের মতোই জেবা। সুন্দর হাসি, কথা বলার ভঙ্গি- সব মিলিয়েই হয়তো দর্শক তাকে নেহা কক্করের সাথে সাদৃশ্য খুঁজে পেয়েছেন। তবে আচার আচরণে জেবা মোটেও অন্যের মতো হতে চান না। নিজের পারিবারিক শিক্ষা, সামাজিকতা আর অধ্যবসায় নিয়ে নিজের মতোই ছুটে চলতে চান।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি এই মডেল ও অভিনেত্রী এসেছিলেন চ্যানেল আইয়ের নিয়মিত আয়োজন ‘তিনশো সেকেন্ড’ এ। সেহাঙ্গল বিপ্লবের প্রযোজনা ও শাহরিয়ার নাজিম জয়ের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে নিজের ক্যারিয়ার ও ব্যক্তি জীবন নিয়ে কথা বলেন। যা পরবর্তীতে চ্যানেল আইয়ের ইউটিউবেও দেয়া হয়। সেখানে জেবার প্রশংসার পাশাপাশি কেউ কেউ তাকে নেহা কক্করের সাথে তুলনা করেন!

বিজ্ঞাপন

২০১৪ সালে ‘ভিট চ্যানেল আই টপ মডেল’ হিসেবে সেরা পাঁচের মধ্যে ছিলেন জেবা, এরপর টেলিভিশন বেশকিছু অনুষ্ঠান উপস্থাপনাসহ অল্প কিছু নাটকে দেখা গেছে তাকে। নিয়মিত তাকে কাজে কেন পাওয়া যায়নি, জয়ের প্রশ্নে জেবা বলেন, আমি যখন বিউটি কন্টেস্টে এর প্রতিযোগী তখন আমার পড়ালেখা চলছিলো। এ বছরের শুরুর দিকে আমার পড়ালেখা শেষ হয়েছে। পড়াশোনার দিকে গুরুত্ব দিতে গিয়েই মূলত কাজে অনিয়মিত ছিলাম।

রাজধানীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাইক্রোবায়োলজিতে অনার্স করেছেন জেবা। তবে পারিবারিক শিক্ষার গুরুত্ব বেশি তার কাছে। বাবা-মায়ের কাছ থেকে যে শিক্ষা তিনি জীবনের শুরু থেকেই পেয়ে আসছেন, সেটাকেই পাথেয় মনে করেন জেবা। বলেন, বাবা ও মা আমাকে সব সময় বলেন- ‘মনের শান্তিটা রাখবা। সব সময়। যে কাজই করো, যেখানেই যাও- এমন কিছু করবা না যেটা রাতের ঘুম নষ্ট করে এবং নিজের মনের শান্তিটা নষ্ট করে।’

পড়াশোনা শেষ করেছেন, তবে কি এখন তিনি মিডিয়াতে নিয়মিত হবেন নাকি অন্য দিকে ক্যারিয়ারের মোড় ঘুরাবেন জেবা? জয়ের এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘মিডিয়া আমার ভালোবাসার জায়গা। অবশ্যই আমি এখানে থাকতে চাই, কাজ করতে চাই।’