চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সীমান্তবর্তী জেলায় পর্যাপ্ত অক্সিজেন মজুদ রয়েছে: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সীমান্তবর্তী জেলাগুলোতে পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেন মজুদ আছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

আজ বুধবার দুপুরে অধিদপ্তরের নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম বলেন, করোনা আক্রান্ত রোগীদের শতকরা ৯০ ভাগই বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বাকি ১০ শতাংশ রোগীদের হাসপাতালে যেতে হচ্ছে এবং তাদের অনেকেরই অক্সিজেনের প্রয়োজন হচ্ছে। এ লক্ষ্যে সারাদশেই আমাদের অক্সিজেন সরবরাহ পর্যাপ্ত পরিমাণে রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, সারাদেশে প্রায় এক হাজার ৫৮৯টি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা এবং এক হাজার ৪৬৯টি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর সরবরাহ করা হয়েছে। এছাড়াও ২৩ হাজারের বেশি অক্সিজেন সিলিন্ডার আমাদের সরবরাহ করা আছে।

নাজমুল ইসলাম বলেন, আমরা দেখছি সীমান্তবর্তী জেলাগুলোতে শতকরা হিসাবে শনাক্তের হার অন্য যেকোন জেলার তুলনায় অনেক বেশি বেড়ে গেছে। তবে আতঙ্কের কিছু নেই, সে জায়গাগুলোর হাসপাতালে পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেনসহ চিকিৎসাসামগ্রী মজুদ রাখা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, গত এক সপ্তাহে যদি আমরা সংক্রমণ পরিস্থিতি দেখি, তাহলে ২৬ মে শতকরা হিসাবে শনাক্তের হার ছিল ৯ দশমিক ১১ শতাংশ। সেইদিন এক হাজার ৪৯৭ জন রোগী আমরা চিহ্নিত করতে পেরেছিলাম। তারপর তিন দিন সংক্রমণের সংখ্যা খানিকটা কম ছিল। এরপর আবার সপ্তাহের শেষে এসে ৩১ মে এবং পহেলা জুনে শনাক্তের সংখ্যা ১৭শ ছাড়িয়ে গেছে। এর মানে বুঝতেই পারছেন, সংক্রমণ কিন্তু আবার বাড়তে শুরু করেছে।

তিনি বলেন, এ অবস্থায় আমাদের যেটি করণীয়, তা হলো- স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা। এমনকি এ সতর্কবার্তাটি সবাইকে ছড়িয়ে এবং জানিয়ে দেওয়া।