চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মমতা ব্যানার্জির চাপে আনন্দবাজার পত্রিকার সম্পাদকের পদত্যাগ!

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির চাপে পদত্যাগ করেছেন আনন্দবাজার পত্রিকার সম্পাদক অনির্বাণ চট্টোপাধ্যায়।

রোববার বিকেলে আনন্দবাজার পত্রিকা সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞাপন

আনন্দবাজার পত্রিকা সূত্র জানায়, অনির্বাণ চট্টোপাধ্যায়ের পদত্যাগের পর নতুন সম্পাদক হচ্ছেন ঈশানী দত্ত রায়। তিনি পত্রিকাটির বার্তা সম্পাদকের ভূমিকায় ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

কলকাতার একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, ঘূর্ণিঝড় আম্পান পরবর্তী গত ২৭ মে এক সংবাদ সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের ভূমিকা অত্যন্ত খারাপ। তিনি সরাসরি নাম করে সমালোচনা করেন আনন্দবাজার পত্রিকার।

বিজ্ঞাপন

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আপনারা সরকারকে দুটো দিন সময় না দিয়ে রাস্তায় বেরিয়ে উত্তেজনা ছড়ালেন।

আনন্দবাজার পত্রিকার সাম্প্রতিক সম্পাদকীয় নীতির কারণে কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের ত্রাণ পাওয়া থেকে বঞ্চিত হয়েছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন মমতা ব্যানার্জি।

মমতা ব্যানার্জি বলেন, আপনারা যে রাজ্যের কত বড় ক্ষতি করলেন, একদিন বুঝবেন, যেদিন নিজেদের এই সমস্যার মধ্যে পড়তে হবে।

সম্প্রতি আনন্দবাজার পত্রিকার সম্পাদককে হেয়ারস্ট্রিট থানায় ডেকে নিয়ে ৬ ঘণ্টার পুলিশি জেরা করা হয়। এই পুলিশি জেরা নিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকা নিজেই নিশ্চুপ। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গসহ অন্যান্য গণমাধ্যমেও এ বিষয়ে তেমন কোনো খবর পরিবেশন হয়নি। এর ফলে সম্পাদকের পদত্যাগ নিয়ে নানামুখী গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এসব খবরের মধ্যেই চ্যানেল আই অনলাইনকে আনন্দবাজার পত্রিকার নির্ভরযোগ্য সূত্র আজ সন্ধ্যায় তার পদত্যাগের খবর নিশ্চিত করে।

পশ্চিমবঙ্গের বাম নেতা সূর্যকান্ত মিশ্র এ নিয়ে এক টুইট বার্তায় বলেন, আনন্দবাজার পত্রিকার সম্পাদককে ডেকে নিয়ে পুলিশি জেরার মুখে হেনস্তা করা স্বাধীন সাংবাদিকতার ওপর একটি হামলা।