চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতে আবারও ফ্লাইওভার ধস, বহু হতাহত

ভারতের উত্তর প্রদেশের বারাণসীতে নির্মাণাধীন ফ্লাইওভারের একাংশ ধসে এখন পর্যন্ত ১৮ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ধ্বংসস্তুপের নিচে যানবাহনসহ চাপা পড়েছেন আরও অনেকে।

ফ্লাইওভারের নিচ থেকে এ পর্যন্ত তিনজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। আটকে পড়াদের অনেকেই নির্মাণাধীন ফ্লাইওভারে কাজ করা শ্রমিক বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার বিকেলে দিনের ব্যস্ততম সময়ে নির্মাণাধীন ফ্লাইওভারের দু’টি পিলার এবং বেশ কয়েকটি স্ল্যাব ধসে পড়ে। ওই এলাকায় সে সময় যানজট থাকায় বেশ কয়েকটি প্রাইভেট কার এবং যাত্রীবাহী বাস পিলারের নিচে চাপা পড়ে।

ধসের ঘটনার ঘণ্টাখানেক পরে উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বলে অভিযোগ করেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

ধসে পড়া ফ্লাইওভারের উদ্ধার কাজ চালাচ্ছেন ভারতের জাতীয় দুর্যোগ মোকাবেলা সংস্থা (এনডিআরএফ)-এর কর্মীরা। এনডিআরএফ-এর পাঁচটি উদ্ধারকারী দল উদ্ধারকাজে নিয়োজিত আছে।ভারত-ফ্লাইওভার ধস

এছাড়া পুলিশও রয়েছে ঘটনাস্থলে।

বিজ্ঞাপন

ধসে পড়া ফ্লাইওভারের অংশগুলো সরিয়ে নিতে ৮টি ক্রেন কাজ করছে। একটি ২শ’ টন উত্তোলন ক্ষমতার বড় ক্রেনও আনা হচ্ছে। এছাড়া গ্যাস কাটারের সাহায্যে দ্রুত ধ্বংসাবশেষের অংশ কেটে আটকে পড়াদের বের করে আনার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ফ্লাইওভার ধসে হতাহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

আটকে পড়াদের দ্রুত উদ্ধারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এছাড়া ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতেও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।ভারত-ফ্লাইওভার ধস

২ হাজার ২৬১ মিটার লম্বা ফ্লাইওভারটি তৈরিতে ১২৯ কোটি রুপি ব্যয় হচ্ছে। উত্তর প্রদেশ স্টেট ব্রিজ কর্পোরেশনের অধীনে নির্মাণাধীন উড়ালসেতুটির ৫৬ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

যে অংশটি ভেঙে পড়েছে, সেটি গত ফেব্রুয়ারিতেই বসানো হয়েছিল।

এর আগে ২০১৬ সালের ৩১ মার্চ পশ্চিমবঙ্গে আরেকটি ফ্লাইওভারের অংশ ধসের ঘটনা ঘটেছিল। ওই ঘটনায় ২৬ জন নিহত হয়েছিল। আহত হয়েছিল কমপক্ষে ৭৫ জন।

Bellow Post-Green View