চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফেব্রুয়ারিতে হচ্ছে না একুশে বইমেলা

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ফেব্রুয়ারিতে অমর একুশে বইমেলা হচ্ছে না, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরে আয়োজন করা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী।

রোববার বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘ফেব্রুয়ারি মাসে করোনার কারণে বইমেলা হচ্ছে না। তবে, অমর একুশে বইমেলা হচ্ছে না এমন কিছু না। করোনা পরিস্থিতি উন্নত হলে পরবর্তীতে সময় ও তারিখ ঘোষণা করা হবে।’

‘কোনো পরিকল্পনা এখন পর্যন্ত ঠিক হয়নি। মোটকথা ফেব্রুয়ারির এক তারিখে যে বইমেলা উদ্বোধনের কথা, প্রধানমন্ত্রী আসার কথা সেই প্রোগ্রামটা হচ্ছে না, বইমেলা শুরু হচ্ছে না। কবে শুরু হবে সে ব্যাপারে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। পরিস্থিতি বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত হবে। ’

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি, বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতি এবং বাংলা একাডেমি বইমেলা নিয়ে বৈঠক করে। পরে মার্চ মাসে বইমেলা আয়োজনের প্রস্তাব সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। মন্ত্রণালয় এখনো এ ব্যাপারে কিছু জানায়নি।

এর আগে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় ভার্চুয়ালি বইমেলা আয়োজনের কথা ভাবনায় ছিল বাংলা একাডেমির। তবে এতে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় লেখক ও প্রকাশকদের মধ্যে।

এদিকে দেশে করোনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে থাকলেও শঙ্কা কেটে গেছে বলে মনে করেন না বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, করোনা পরিস্থিতি আরও জটিল আকার ধারণ করতে পারে যেকোনো সময়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও রোববার একটি অনুষ্ঠানে ইঙ্গিত দিয়েছেন, মার্চে করোনার আরেকটি ধাক্কা আসতে পারে। এজন্য সবাইকে আরও বেশি স্বাস্থ্য সচেতন হওয়ার তাগিদ দিয়েছেন তিনি।

প্রতি বছর ফেব্রুয়ারির ১ তারিখ থেকে বইমেলা শুরু হয়ে পুরো মাস চলে। এক মাস পিছিয়ে মার্চে বইমেলা করার যে পরিকল্পনা করেছিলেন প্রকাশকরা সেটাও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। করোনা পরিস্থিতির অবনতি হলে অনিশ্চিত হতে পারে এবারের বইমেলা।