চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ট্রাফিক আইন সচেতনতায় ভিন্নধর্মী স্ট্রিট ‘ফ্যাশন শো’

ট্রাফিক আইন সচেতনতায় ভিন্নধর্মী স্ট্রিট ফ্যাশন শো’র আয়োজন করেছে আপেক্স ফুটওয়ার লিমিটেড।ভিন্নধর্মী আয়োজনটি প্রশংসার দাবি রাখে বলে জানিয়েছে গুলশান ট্রাফিক বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বৃহস্পতিবার সকালে গুলশান ২ গোল চত্ত্বরের মোড়ে জেব্রা ক্রসিংয়ে ভিন্নধর্মী স্ট্রিট ফ্যাশন শো আয়োজন করে আপেক্স।ফ্যাশন শোতে অংশ নেন র‌্যাম্প মডেলরা। ফ্যাশন শো’টি আপেক্সের ফেসবুক পেজে লাইভ দেখানো হয়।

‘ট্রাফিক আইন মেনে চলুন, জেব্রা ক্রসিং ব্যবহার করুন’ এ স্লোগানে বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড নিয়ে মডেলরা জেব্রা ক্রসিং ধরে পারাপার হন এবং ফটোসেশনে অংশ নেয়।

বিষয়টি নিয়ে ঢাকা মহানগর ট্রাফিক (উত্তর) বিভাগের গুলশান জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার এম এম মঈনুল ইসলাম চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন: জেব্রা ক্রসিংয়ে পারপারে পথচারীদের উদ্বুদ্ধকরণে আমরাও বিভিন্ন সময় প্রোগ্রাম করে থাকি। যেমন, কাকলিতে আমরা ট্রাফিক কাউন্সিলিং করে থাকি, যারা ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার না করে তাদের আমরা এক ঘন্টা আমাদের ট্রাফিক বক্সে নিয়ে রাখি এবং ট্রাফিক রিলেটেড ভিডিও ক্লিপিস এবং ট্রাফিক গাইড বুক পড়াই এবং কাউন্সিলিং করাই। এটা আমাদের সচেতনার একটা অংশ। এর অংশ হিসেবে ট্রাফিক বিভাগ অবশ্যয় আপেক্সকে স্বাগত জানাই। এটা প্রশংসার দাবি রাখে।

তিনি আরও বলেন, রাস্তা পারাপারের যে আইনগুলো আছে সেগুলো মেনে চলতে পথচারীদের সবসময়েই ট্রাফিক বিভাগের পক্ষ থেকে দিক নির্দেশনা দেই। যেখানে জেব্রা ক্রসিং আছে সেখানে জেব্রা ক্রসিং দিয়ে পার হবে, যেখানে ফুট ওভারব্রিজ আছে সেখানে ফুট ওভারব্রিজ দিয়ে পার হবে। যেখানে আন্ডারপাস আছে সেখানে আন্ডারপাস দিয়ে পার হবে।

‘আসলে আমরা আইন মানতে বেশি পছন্দ করি না আইন ভঙ্গ করতে পছন্দ করি। সে ক্ষেত্রে আপেক্সের যে উদ্যোগ নিয়েছে সেটাকে অবশ্যয় আমরা স্বাগত জানাই।’

সামজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও ভিন্নধর্মী ফ্যাশন শোটি নিয়ে বিভিন্ন গ্রুপে নানা আলোচনা হচ্ছে। কেউ এ সচেতনতাকে ভালোভাবে নিচ্ছে কেউবা ঈদের আগে আপেক্সের ব্যবসায়িক পলিসির অংশ হিসেবে বিষয়টাকে দেখছে।