চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চলচ্চিত্র বাঁচাতে দরকার হলে জীবন দেব: হাসান ইমাম

জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস ২০১৮

‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি একবার এফডিসিতে ষাট কোটি টাকা দিয়েছিলেন। এফডিসি কর্তৃপক্ষ সেই টাকা ঠিকমত ব্যবহার করতে পারেনি। এমনভাবে যদি অপব্যয় হয় তাহলে আমাদের চলচ্চিত্র শিল্প আধুনিকায়ন হবে না, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যাবে না। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী, কলাকুশলী ও কর্মীদের তরফ থেকে সবার সামনে আমি শপথ নিয়ে বলছি, এই চলচ্চিত্র বাঁচাতে প্রয়োজনে জীবন দেব। তবুও এই শিল্প ধ্বংস হতে দেব না।’

জাতীয় চলচ্চিত্র দিবসে কথাগুলো বলছিলেন প্রবীণ অভিনেতা হাসান ইমাম। আজ মঙ্গলবার (৩ এপ্রিল) জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস উযদাপন উপলক্ষে কিংবদন্তী এই সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব বলেন: ষাটের দশকে আমাদের চলচ্চিত্রের যে গৌরব ছিল, সেটা আবার ফিরে আসবে। এ ব্যাপারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনার সদয় আন্তরিকতা কামনা করছি। আমাদের দরকার সেন্ট্রাল সার্ভার, পাইরেসি ঠেকানো, সিনেমা হল ও প্রদর্শন ব্যবস্থা আধুনিকায়ন।

হাসান ইমাম বলেন: সর্বোপরি এফডিসি আধুনিকায়ন করতে এবং সব আবর্জনা পরিষ্কার করতে প্রয়োজন হলে আমরা আবার আন্দোলন করবো। আজকের এই দিনে আমরা এই শপথই নিলাম। আমরা আবার হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনবো। আশা করছি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের দিকে অতিসত্বর সু-নজর দেবেন।

বিজ্ঞাপন

চলচ্চিত্র দিবস উদযাপন কমিটির সভাপতি হাসান ইমাম। তিনি যখন এসব কথা বলছিলেন তখন পাশে উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা ফারুক, ইলিয়াস কাঞ্চন, এটিএম শামসুজ্জামান, মিশা সওদাগর, জায়েদ খান, পপি, সাইমন, নাসরিন, মোহাম্মদ হোসেন জেমি, মুশফিকুর রহমান গুলজার, সুজাতা, শাহীন সুমন, সুব্রত, জয় চৌধুরী প্রমুখ।

এসময় এটিএম শামসুজ্জামান বলেন, চলচ্চিত্র বানাতে টাকা লাগে। সরকার ছবি বানানোর জন্য টাকা নানানভাবে ভাগ করে দিচ্ছেন। তাতে ভালো মানের চলচ্চিত্র নির্মাণ হচ্ছে না। এটাকে আমার কাছে চলচ্চিত্রের ফিতরা মনে হয়। ঈদের ফিতরা যেমন হয়, এটা তেমনি চলচ্চিত্রের ফিতরা। এই টাকায় কি ছবি বানানো যায় নাকি? কাজেই এই চলচ্চিত্র দিবসে আমি সরকারের কাছে অনুরোধ করছি, ৪-৫ কোটি টাকা যাই বরাদ্দ থাকুক সেটা যেন দুজনের মধ্যে দেয়া যায়। যারা ভালো ছবি বানাতে পারেন।

ছবি: নাহিয়ান ইমন

বিজ্ঞাপন