চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গবেষণা বলছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের চেয়ে ফাইজারের কার্যকারিতা কম

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ফাইজার-বায়োটেক ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা অ্যাস্ট্রাজেনেকার চেয়ে দ্রুত হ্রাস পায় বৃহস্পতিবার প্রকাশিত একটি নতুন গবেষণায় দেখা গেছে।

এনডিটিভির তথ্যের ভিত্তিতে, অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির গবেষকরা বলেছেন, ‘ফাইজার-বায়োটেক এর দুটি ডোজ নতুন কোভিড -১ বিরুদ্ধে প্রাথমিকভাবে কার্যকারিতা বেশি, কিন্তু অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার দুটি ডোজের তুলনায় ফাইজারের কার্যকারিতা কম।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

তবে এই সমীক্ষাটি এখনও কোন পর্যালোচনা করা হয়নি। ব্রিটেনের জাতীয় পরিসংখ্যানের অফিসের একটি জরিপের ফলাফলের উপর ভিত্তি করে গত বছরের ডিসেম্বর থেকে এই মাস পর্যন্ত পিসিআর পরীক্ষা করে এর ফলাফল নির্বাচন করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়ের নফিল্ড মেডিসিন বিভাগের মতে, ফাইজার এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকার মধ্যে দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করার পর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার গতিশীলতা উল্লেখযোগ্যভাবে ভিন্ন।

গবেষণায় বলা হয়েছে, এই ফলাফলটি এসেছে ইসরায়েলে করোনার বুস্টার শট পরিচালনার পর, সেখানে ৫৪ শতাংশ মানুষকে ফাইজারের দুইটি ডোজ দেওয়া হয়। এরপর ফাইজার এবং মডার্নার ভ্যাকসিনগুলির কার্যকারিতা হ্রাসের বিষয়ে উদ্বেগের পরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। অ্যান্টিবডির মাত্রা বাড়ানোর জন্য বুস্টার ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রস্তাব করেন তারা।

তবে এর তুলনায় অ্যাস্ট্রাজেনেকার কার্যকারিতা বেশি বলেও জানান গবেষকরা। পরীক্ষায় আরও দেখা যায়, যারা আগে থেকেই করোনায় আক্রান্ত ছিলেন, তাদের মধ্যে আক্রান্তের হারটা কম ছিল এমনকি তারা ডেল্টা ধরনের বিরুদ্ধেও মোকাবেলা করতে পেরেছিল।