চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কিডস মিডিয়া এবার পা রাখছে দক্ষিণ এশিয়ায়

বাংলাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম ক্ষুদে গণমাধ্যম সংস্থা ‘এআর কিডস মিডিয়া’। মূলত ক্ষুদে গণমাধ্যমকর্মী গড়ে তোলাই এ প্রতিষ্ঠানের কাজ। বাংলাদেশে চার বছর সফলতার গণ্ডি পেরিয়ে এবার তারা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পা রাখতে চলেছে।

এআর কিডস মিডিয়ার প্রধান নির্বাহী আরিফ রহমান শিবলি চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, বাংলাদেশে বিগত চার বছরে সাফল্য ও জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছি আমরা। তাই এবার আরো বড় পরিসরে যাওয়ার পরিকল্পনা। এবার পুরো দক্ষিণ এশিয়ার শিশুদের নিয়ে কাজ শুরু করব আমরা।

আরিফ রহমান আরো বলেন, এবারের যাত্রাটি সম্পূর্ণ অন্যরকম। যেখানে আমরা আন্তর্জাতিক প্লাটফর্মে পা দিতে যাচ্ছি। আমাদের সাথে যোগ দেবে দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশের বাচ্চারা। আরো থাকবেন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সংবাদকর্মী এবং সংবাদ পাঠকরা।আমাদের এখান থেকে কোর্স শেষ করা বাচ্চারা সরাসরি অনলাইন, টিভি চ্যানেল ও প্রিন্ট মাধ্যমে কাজের সুযোগ পাবে। ইতোমধ্যে বেশকিছু পদক্ষেপও নেয়া হয়েছে।

Advertisement

নতুন কার্যালয় উদ্বোধন নিয়ে চ্যানেল আই অনলাইনকে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী তিনি বলেন, জাতীয় নির্বাচনের পর পর ঢাকায় একটি রেস্টুরেন্টে আমরা সর্বপ্রথম আমাদের অফিসিয়াল লোগো ও ওয়েবসাইট উন্মোচন করবো। যে অনুষ্ঠানে দেশের জনপ্রিয় সংবাদ পাঠক, সাংবাদিক, তারকা শিল্পী, রাজনীতিবিদসহ বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষের আশা প্রত্যাশার কথা শুনবো আমরা। সেই অনুষ্ঠানেই নতুন কার্যালয় উদ্বোধনের তারিখ জানিয়ে দেয়া হবে।

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান ব্যবস্থাপক ও মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান মেজর বেলায়েত হোসেন (অব.) জানান, কোর্সে আসা দেশি-বিদেশি বাচ্চাদের এবং অভিভাবকদের নিরাপত্তা পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এআর কিডস এর নিজস্ব নিরাপত্তারক্ষী দল তিন স্তরে কাজ করবে।

তবে যে দলই ক্ষমতায় আসুক তারা যেন শিশুদের নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য, শিক্ষার দিকে বিশেষ জোর দিয়ে কাজ করেন। এটা শুধু নির্বাচনী ইশতেহারেই সীমাবদ্ধ যেন না থাকে। সবমিলিয়ে আসন্ন নির্বাচনে শিশুবান্ধব সরকারও দেখতে চাই আমরা, বলেন মেজর বেলায়েত।