চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কানাডায় ’ভ্যাকসিন ইনজুরি সাপোর্ট প্রোগ্রাম’ ঘোষণা 

সারাবিশ্বে ভ্যাকসিন প্রয়োগ নিয়ে রয়েছে নানা ধরনের মিশ্র প্রতিক্রিয়া। করোনার এই সময়ে ভ্যাকসিন দেয়ার ফলে বড় ধরনের কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলে সরকার তার জন্য ক্ষতিপূরণ দেবে। এই লক্ষ্যে ফেডারেল সরকার ‘ভ্যাকসিন ইনজুরি সাপোর্ট প্রোগ্রাম’ নামে একটি কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনে বড় ধরনের কোনো প্রতিক্রিয়ার খবর পাওয়া যায় নি। নাগরিকদের মনে আস্থা তৈরির জন্যই এই কর্মসূচি চালুর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার এক সংবাদসম্মেলনে জাস্টিন ট্রুডো ভ্যাকসিন ইনজুরি সাপোর্ট প্রোগ্রামের কথা জানান।

বিজ্ঞাপন

ঘোষণায় বলা হয়, কেবল কোভিড ভ্যাকসিন নয়, সব ধরনের ভ্যাকসিনই এই সাপোর্ট প্রোগ্রামের আওতায় থাকবে।

জি-৭ দেশসমূহসহ বিশ্বের ২০টি দেশে এই সহায়তা কর্মসূচি চালু হয়েছে বলে সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। তবে কানাডার কুইবেক প্রদেশে এই ধরনের একটি কর্মসূচি গত ৩০ বছর ধরেই বিদ্যমান আছে।

অন্যদিকে কানাডার প্রধান চারটি প্রদেশে ক্রমবর্ধমান হারে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। উল্লেখ্য কানাডায় আগামী মঙ্গলবার থেকে অন্টারিও প্রদেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে বলে জানা গেছে।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, কানাডায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ৪৮ হাজার ৮ শত ৪১ জন, মৃত্যুবরণ করেছেন ১৩ হাজার ২ শত ৫১ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৬২ হাজার ২ শত ৯৩ জন।