চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘উইমেন ভয়েস অ্যান্ড লিডারশিপ-বাংলাদেশ’ প্রকল্পের যাত্রা শুরু

নারী-অধিকারভিত্তিক সংগঠন গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা’র অর্থায়নে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ) উইমেন ভয়েস অ্যান্ড লিডারশিপ-বাংলাদেশ শীর্ষক চার বছরের একটি প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য অংশীদারিত্ব চুক্তিতে সাক্ষর করেছে।

বুধবার এই চুক্তি সাক্ষর হয়।

বিজ্ঞাপন

এই নতুন প্রকল্পটি ২০২৪ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণ এবং সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে বাংলাদেশে নারী ও মেয়েদের অধিকার এবং লিঙ্গ সমতার সুরক্ষার কাযর্ক্রমকে এগিয়ে নেবে।

বিজ্ঞাপন

এমজেএফের ঢাকা অফিসে আয়োজিত চুক্তি-সম্পাদন অনুষ্ঠানে সকল অংশীদারদের অভিনন্দন জানিয়ে এমজেএফের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম সবধরণের সতর্কতা অবলম্বনের মাধ্যমে অনুদানের অর্থ অংশীজনদের প্রয়োজনে ব্যবহার করে প্রকল্পের কাঙ্খিত সাফল্য অর্জনে মনোনিবেশ করতে সহযোগী সংগঠনের নির্বাহী পরিচালকদের প্রতি আহবান জানান।

সহযোগী সংস্থাসমূহের মাধ্যমে প্রায় এক লক্ষেরও বেশি নারী ও মেয়েদের কাছে প্রকল্পের সুফল পৌঁছানোর পাশাপাশি এই প্রকল্পের মাধ্যমে সাংগঠনিক উন্নয়ন এবং টেকসই সংস্থা গঠন, নারীর ক্ষমতায়ন এবং মানসম্মত পরিষেবাদির উন্নতি এবং লিঙ্গ সমতা এবং নারী অধিকারের প্ল্যাটফর্মগুলির কার্যকারিতার জন্য অধিপরামর্শ এবং নেটওয়ার্ক বিস্তার কার্যক্রম গৃহীত হবে।

একটি কঠোর এবং প্রতিযোগিতামূলক পর্যালোচনা প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নির্বাচিত ১৫টি নারী-অধিকারভিত্তিক সংগঠন হল: বাংলাদেশ অভিবাসী মহিলা শ্রমিক এ্যাসোসিয়েশন, ঢাকা; বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতি, ঢাকা; সেন্টার ফর উইমেন এন্ড চিলড্রেন স্টাডিজ, ঢাকা; কনসানর্ড উইমেন ফর ফ্যামিলি ডেভেলপমেন্ট, ঢাকা; দিনের আলো হিজড়া উন্নয়ন মহিলা সংস্থা, রাজশাহী; দলিত এ্যামপাওয়ারমেন্ট ফাউন্ডেশন, সাতক্ষীরা; জাগরণী সংস্থা, গোপালগঞ্জ; মুক্তি মহিলা সমিতি, রাজবাড়ী; প্রতিবন্ধী নারীদের জাতীয় পরিষদ, ঢাকা; পারিবারিক আয় উন্নয়ন মহিলা সংস্থা, লালমনিরহাট; প্রাগ্রসর সামাজিক উন্নয়ন ও প্রগতি কেন্দ্র, ঢাকা; সেক্স ওর্য়াকারস নেটওর্য়াক বাংলাদেশ, ঢাকা; সবুজের যাত্রা, চট্টগ্রাম; সুস্থ জীবন, ঢাকা এবং উদ্দীপ্ত মহিলা উন্নয়ন সংস্থা, সাতক্ষীরা।

উইমেন ভয়েস অ্যান্ড লিডারশিপ হ’ল গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডার একটি বৈশ্বিক উদ্যোগ যা সম্প্রতি প্রবর্তিত কানাডার নতুন নারীবাদী আন্তর্জাতিক সহযোগিতার নীতিকে এগিয়ে নিতে ৩০টি দেশে চালু করা হয়েছে।