চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অসহায়কে বাঁচিয়ে সালাহ যখন ‘সত্যিকারের নায়ক’

গত সেপ্টেম্বরের এক সিসিটিভি ফুটেজ হঠাৎ করেই সামনে এসেছে। তাতে মোহামেদ সালাহকে নিয়ে ধন্য ধন্য রব পড়ে গেছে। মাঠের ফুটবলে ৩০ বছর পর লিভারপুলকে শিরোপা জেতানো মিশরীয় ফরোয়ার্ড যখন অ্যানফিল্ডে ‘হৃদয়ের রাজা’, তখন সবার হৃদয় কাড়লেন মানবীয় এক কারণেও।

গত মাসের শেষের দিকের ঘটনা। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় পেট্রোল স্টেশন থেকে গাড়িতে গ্যাস ভরে ফিরছিলেন সালাহ। এমন সময় রাস্তার পাশে ডেভিড ক্রেইগ নামের এক সম্বলহীন, পথে বাস করা ওই ব্যক্তিকে উত্যক্ত করছিল একদল বখাটে।

বিজ্ঞাপন

বিষয়টি দেখে দ্রুত গাড়ি থেকে নেমে পড়েন সালাহ, বখাটেদের হুঁশিয়ারি দিয়ে কিছু বলেন। মনে হচ্ছিল বলছেন, এভাবে অসহায়কে যন্ত্রণা দিলে তোমাদেরও একদিন এমন পরিণতি হবে।

বিজ্ঞাপন

পথের ব্যক্তিকে বখাটেদের হাত থেকে রক্ষা করে তার হাতে বেশকিছু অর্থ ধরিয়ে দিয়ে চলে যান লিভারপুল তারকা।

গত মাসে প্রিমিয়ার লিগে আর্সেনালকে নিজ মাঠে ৩-১ গোলে হারায় লিভারপুল। ম্যাচে পুরো ৯০ মিনিটই খেলেছেন সালাহ। ম্যাচের পর বাড়ি ফেরার পথে ঘটনাটি ঘটে।

বিজ্ঞাপন

সালাহর মুখের কথা সিসিটিভিতে শোনা যায়নি, শারীরিক ভাষাই বলে দিচ্ছিল বখাটেদের উদ্দেশ্যে কেমন ছিলেন তিনি। সেই ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পর প্রশংসায় পঞ্চমুখ সবাই।

‘মো(সালাহ) লিভারপুলের হয়ে মাঠের মতোই সবখানে অসাধারণ।’ ডেভিড ক্রেইগকে উদ্ধৃত করে লিখেছে ডেইলি সান।

‘একদল বখাটে যখন আমাকে কটু কথা বলছিল, সে তাদের উদ্দেশ্যে বলেছে, আর কয়েক বছর পর তোমাদেরও এমন পরিণতি হবে। বিশ্বাসই করতে পারছিলাম না এরপর সে আমার হাতে ১০০ পাউন্ড (বাংলাদেশি ১০ হাজার টাকার বেশি) ধরিয়ে দিয়ে গেছে। অসাধারণ একজন কিংবদন্তি।’

‘মো একজন সত্যিকারের নায়ক। আমি তাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।’ বলেছেন ওই ব্যক্তি।

সালাহর এমন মহৎ কর্ম অবশ্য নতুন কিছু নয়। দুবছর আগে মিশরে একটি হাসপাতাল ও মেয়েদের জন্য স্কুল গড়তে অর্থ দিয়েছেন লিভারপুল ফরোয়ার্ড। পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে ফুটবলকে বিদায় বলা আল আহলির মিডফিল্ডার মোহামেন জাকারিয়ার উদযাপন নকল করে কিছুদিন আগে গোলের পর তাকে শ্রদ্ধা জানান সালাহ।