চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

থাইল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ

Nagod
Bkash July

টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে জায়গা করে নিতে জিততেই হতো বাংলাদেশের মেয়েদের। বাছাইপর্বের সেমিফাইনালে থাইল্যান্ডকে হারিয়ে সেই ২০২৩ আসরে খেলা নিশ্চিত করেছে নিগার সুলতানা জ্যোতির দল।

এখন ফাইনালের খেলা বাকি, যেখানে জয়-পরাজয় দিয়ে ঠিক হবে কেবল আসরে কে কোন গ্রুপে খেলবে। টিম টাইগ্রেসের ফাইনালের প্রতিপক্ষ আয়ারল্যান্ড। শনিবার রাত ৯টায় তাদের বিপক্ষে নামবে বাংলাদেশ।

Sarkas

আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে শুরুতে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ১১৩ রান তোলে বাংলাদেশ। ব্যাটিংয়ে প্রত্যাশা না মিটলেও বোলিংয়ে কাজটা সহজ করে দেন সালমা খাতুন-সানজিদা আক্তার। ১১ রানের জয় তোলে লাল-সবুজরা।

আরেক সেমিতে জিম্বাবুয়ের মেয়েদের হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে আইরিশ মেয়েরা। প্রথম সেমিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৩৭ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে আয়ারল্যান্ড উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ জিতে নেয় ৪ রানে।

সাউথ আফ্রিকায় ১০ দলের আসর শুরু হবে আসছে বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি, চলবে ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। র‌্যাঙ্কিংয়ের ভিত্তিতে আগেই নির্ধারণ করা হয়েছে ৮ দল। এবার শেষ দুদল হিসেবে জায়গা করে নিলো বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ড।

মেয়েদের টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপটিতে সাউথ আফ্রিকা (স্বাগতিক), অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ভারত, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ড খেলবে।

শুক্রবার রাতে টস হেরে ব্যাটিংয়ে দারুণ শুরু পায় বাংলাদেশ। ৩৪ রানের ওপেনিং জুটি ভাঙে ১১ রানে ফারজানা হক ফিরলে। আরেক ওপেনার মুর্শিদা খাতুন করেন ৩৫ বলে ২৬ রান। উইকেট না হারালেও রান তুলতে খাবি খান ব্যাটাররা।

অধিনায়ক জ্যোতি করেন ২৪ বলে ১৭ রান। ঋতুমনির ব্যাট থেকে আসে ১০ বলে ১৭ রান। ২৪ বলে দুই চার ও এক ছক্কায় ২৮ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন চারে নামা রুমানা আহমেদ।

বাংলাদেশকে ১১৩ রানে আটকে রাখতে দারুণ বোলিং করেন রোসেনান কানহ ও ওন্নিচা কামসম্ফু। থাইদের হয়ে একটি করে উইকেট নেন কানহ, কামস্ফু ও ফান্নিতা মায়া। মুর্শিদা ও ঋতুমনি ফেরেন রান আউট হয়ে।

অল্প রানের জবাবে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে থাইল্যান্ড। নাৎথাকান চানথামের ৬৪ রানের ইনিংস বাদে কেউই পাননি উল্লেখযোগ্য রান।

বাংলাদেশের হয়ে বোলিংয়ে তোপ দাগেন সালমা খাতুন। অভিজ্ঞ স্পিনার ৪ ওভারে ১৮ রান খরচায় নেন ৩ উইকেট। সানজিদা আক্তার ৪ ওভারে দেন মাত্র ৭ রান, তুলে নেন ২ থাই ব্যাটারকে।

ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে একপাশ আগলে লড়ে যাওয়া চানথাম ৫১ বলে ৪ টি চার ও ৩টি ছক্কা হাঁকান। দলের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১২ রান আসে অধিনায়ক চাইওয়াইয়ের ব্যাট থেকে। নির্ধারিত ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে তারা থামে ১০৬ রানে। তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নামবে থাইরা।

BSH
Bellow Post-Green View