চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

উবারের সাথে এসএসসি পরীক্ষা হোক ঝামেলামুক্ত

জীবনের প্রথম পাবলিক পরীক্ষার খুব কাছাকাছি এসএসসি পরীক্ষার্থীরা। প্রস্তুতির জন্য সবাই প্রচুর পরিশ্রমও করছে। তবে এর জন্য তাদের সম্পূর্ণ নতুন একটি স্কুলে যেতে হবে, যেখানে হয়তো এর আগে তারা কখনোই যায়নি। এ অবস্থায় অভিভাবকরাও কিছুটা দিশেহারা বোধ করতে পারেন। কিন্তু রাস্তার সমস্যা নিয়ে পরীক্ষার্থীদের তো চিন্তা করলে চলবে না।

উবারের সাথে পরীক্ষার হলে তাদের এই যাত্রা হতে পারে সহজ, নির্ঝঞ্ঝাট ও পূর্ব পরিকল্পিত। কাছের ও দূরের যেকোনো জায়গাতেই উবারের সেবা পাওয়া যায়। এই প্ল্যাটফর্মের নিরাপদ সেবার কারণে অভিভাবকদের দুশ্চিন্তার এখন আর কোনো কারণ নেই।

Reneta June

উবার সিএনজি, কার, মোটরবাইক বা রেন্টাল — এর যেকোনোটি বেছে নিতে পারেন পরীক্ষার্থীরা। এসএসসি পরীক্ষার হলে যাতায়াত এখন হবে নিরাপদ ও আরামদায়ক।

বিজ্ঞাপন

তামান্না এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থী। সিলেবাস শেষ করা নিয়ে তার কোনো দুশ্চিন্তা নেই। তার প্রধান দুশ্চিন্তা সকালবেলার যানজট ঠেলে পরীক্ষার হলে সময়মতো পৌঁছানো নিয়ে। তার মতে, “পরীক্ষার হলে প্রত্যেক পরীক্ষার্থী একই প্রশ্ন হাতে পায়। কিন্তু প্রত্যেকে একই এলাকায় থাকে না। পরীক্ষার হলে যাতায়াতের জন্য আমার একমাত্র ভরসা এখন উবার।”

পরীক্ষা চলাকালীন সন্তানের নিরাপত্তার জন্য অনেক বাবা-মা ই এখন উবারের ওপর আস্থা রাখেন। একজন অভিভাবক বলেন, “উবার সিএনজি বা কারে করে আমি আমার মেয়েকে পরীক্ষার আগে তার হলের সামনে নামিয়ে দিয়ে নিজের কাজে চলে যাবো। তার পরীক্ষা শেষ হওয়ার ঠিক আগে উবার মটো করে আমি আবার তাকে তুলে নিতে আসবো। এসএসসি চলার পুরো সময়টা জুড়ে এটাই আমার রুটিন থাকবে।”

কেউ একা আসা-যাওয়া করতে চাইলে আছে উবার মটো। একাধিক ব্যক্তির জন্য উবার এক্স বা সিএনজি দু’টোই যথার্থ হতে পারে। বেশি সংখ্যাক মানুষ একত্রে যাতায়তের জন্য ব্যবহার করা যায় উবার এক্সএল। ঘণ্টা ভিত্তিতে চলাচল করতে চাইলে উবার রেন্টাল হতে পারে সহজ সমাধান।

সুবিধামতো উপায়ে এসএসসি পরীক্ষার হলে যেতে বেছে নিন আপনার পছন্দের উবার রাইড।