চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সম্ভাবনা দেখাচ্ছেন সিয়াম, পর পর আসছে তিন সিনেমা

Nagod
Bkash July

নাটক থেকে সিনেমায় এসে ভুল করেননি নায়ক সিয়াম আহমেদ। কমেনি তার ব্যস্ততা, একের পর সিনেমা করে যাচ্ছেন তিনি। এমনকি করোনাকালীন বসে ছিলেন না বাংলা সিনেমার এখনকার অন্যতম আলোচিত এ তারকা।

Reneta June

সিয়ামের সেইসব সিনেমা একে একে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। ডিসেম্বর-জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি এ তিনমাসে পর পর তিনটি সিনেমা মুক্তি পেতে যাচ্ছে তার।

এর বাইরে দামাল, অপারেশন সুন্দরবন, অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দর, অন্তর্জালসহ আরও কয়েকটি সিনেমা আসছে সিয়ামের।

২৪ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে সিয়াম অভিনীত ‘মৃধা বনাম মৃধা’, ৭  জানুয়ারি ‘শান’ এবং ৪ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে ‘পাপ-পূণ্য’।

গেল শুক্রবার সিয়ামের ‘শান’র ট্রেলার উন্মুক্ত হয়। রীতিমত বিস্ময়কর সাড়া পেয়েছেন এ অভিনেতা। তবে সিয়াম জানান, তার জন্য তিনটি সিনেমাই গুরুত্বপূর্ণ। তিনটি ভিন্ন ধাঁচের সিনেমার মাধ্যমে তিন ধরনের সিয়ামকে পাবেন দর্শক।

সিয়াম বলেন, করোনাকালীন প্রায় প্রতিদিনই কাজের মধ্যে কেটেছে। যেদিন শুটিং ছিল না সেদিন বাসায় স্ক্রিপ্ট নিয়ে স্টাডি করেছি। কাজের মধ্যে ছিলাম। আমার বাবা-মা রিস্ক নিয়ে শুটিং করতে বারণ করলেও শুনিনি। ওই খারাপ সময়ে একটু রিস্ক নিয়ে শুটিং করায় ইউনিটের কমপক্ষে একশো পরিবার সচল ছিল। ইন্ডাস্ট্রির খারাপ সময় কিছু না কিছু কনট্রিবিউট করেছি।

সিনেমার নায়ক হিসেবে ‘পোড়ামন ২’, ‘দহন’ বাণিজ্যিকভাবে আলোচনায় এনেছে সিয়ামকে। ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপট নিয়ে নির্মিত তার সিনেমা ‘ফাগুণ হাওয়ায়’ অভিনেতা হিসেবে দেশ বিদেশে ব্যাপক প্রশংসা ও সম্মাননা এনে দিয়েছে। চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, সিয়াম যে সম্ভাবনা দেখাচ্ছেন; তিনি হতে পারেন আগামীদিনে রুপালী পর্দায় লম্বা রেসের ঘোড়া!

বুধবার দুপুরে চ্যানেল আই অনলাইনের সাথে আলাপ করেন সিয়াম। তিনি মনে করেন, যেসব সিনেমাগুলো করছেন যদি পর্দায় ‘গুড কনটেন্ট’ হিসেবে উপস্থাপন করতে পারেন তবে দর্শক গ্রহণ করবে। বলেন, আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করি প্রত্যেকটা কাজ সঠিকভাবে করার। করোনার কারণে প্রায় একটা বছর কাজগুলো দর্শকদের কাছে পৌঁছে দিতে পারিনি। এখন ধীরে ধীরে সেসব যাচ্ছে।

২৪ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে ‘মৃধা বনাম মৃধা’। ১২ ডিসেম্বর থেকে ছাড়পত্রও পেয়েছে এই সিনেমাটি। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে শুরু করে আগস্ট নাগাদ এর শুটিং শেষ করেন সিয়াম। চেয়েছিলেন টানা শেষ করতে কিন্তু করোনা থামিয়ে দেয়। এই সিনেমাটি পুরোপুরি পারিবারিক গল্পের সিনেমা। গল্প ও চিত্রনাট্য শুনে সিয়াম কাজটি করতে রাজি হন।

তিনি বলেন, গল্পটের প্লটটা এতো চমৎকার এবং চিত্রনাট্যকার রায়হান খান এতো নিখুঁতভাবে লিখেছেন আমি কাজটি মন থেকে করতে চেয়েছি। এই ধরনের কাজ আমি আগে করিনি এবং শুনিওনি যে পারিবারিক ও সামাজিক গল্প এতো দারুণ হতে পারে। তাছাড়া আমাদের সিনেমায় পারিবারিক গল্প দেখাই যায় না। সবদিক বিবেচনা করে কাজটির সঙ্গে থাকতে পেরে আনন্দিত।

অনেকটা তাড়াহুড়ো করে ‘মৃধা বনাম মৃধা’র মুক্তি প্রসঙ্গে সিয়াম বলেন, শুরুর দিকে কথা ছিল এ বছর মুক্তি পাবে। মুক্তির বিষয়টি পরিচালক প্রযোজকদের প্ল্যান। তারা কমপ্যাক্ট প্রমোশনের মাধ্যমে মুক্তি দিতে চান। অনেক আগে থেকে প্রমোশন করলে হয়তো ‘আউট অব দ্য মাউথ’ হতে পারে সেজন্য মুক্তি দিচ্ছেন। তবে কাজটি দেখলে সবাই পছন্দ করতে পারেন এই বিশ্বাসটি রয়েছে।

BSH
Bellow Post-Green View