চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তিন প্রেক্ষাগৃহে প্রয়াত টুটুলের স্বপ্নের ‘কালবেলা’

‘আধিয়ার’ খ্যাত নির্মাতা সাইদুল আনাম টুটুলের স্বপ্নের ছবি ‘কালবেলা’। মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে এই ছবিটি নিজের মতো করে নির্মাণ করতে চেয়েছিলেন তিনি। সব ঠিক ছিলো, ২০১৮ সালে শুটিং শুরু করে প্রায় শেষও করেছিলেন তিনি। কিন্তু পুরো ছবি সম্পূর্ণ করার আগেই মারা যান এই গুণী নির্মাতা।

তাই বলে কি নির্মাতার স্বপ্নের কাজটি থেমে যাবে, আলোর মুখ দেখবে না? তা কি হয়? না, তেমনটা হতে দেয়নি তার পরিবার। সেইসঙ্গে যারা তারসঙ্গে নিয়মিত কাজ করেছেন, সবার সহায়তায় শেষ হয়েছে ‘কালবেলা’ চলচ্চিত্রের সমস্ত কাজ। শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) সেই ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে প্রেক্ষাগৃহে।

ছবি সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, শুক্রবার থেকে তিনটি প্রেক্ষাগৃহে দেখা যাবে ‘কালবেলা’। এরমধ্যে স্টার সিনেপ্লেক্স এর মূল শাখা (বসুন্ধরা সিটি), যমুনা ব্লকবাস্টার ও চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিনে দর্শক ছবিটি দেখতে পারবেন।

বিজ্ঞাপন

এরআগে বুধবার (৮ ডিসেম্বর) মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে হয়েছে ‘কালবেলা’র বিশেষ প্রদর্শনী। যেখানে উপস্থিত ছিলেন দেশের গুণী নির্মাতা থেকে চলচ্চিত্র সমালোচকরা। ছবিটি দেখে এদিন সবাই ভূয়সী প্রশংসা করেন।

নির্মাতার মৃত্যুর পর পুরো জার্নির নেতৃত্বে ছিলেন সাইদুল আনাম টুটুলের স্ত্রী ও এই ছবির প্রযোজক মোবাশ্বেরা খানম। নির্মাতা স্বামীর রেখে যাওয়া অসমাপ্ত কাজটি সম্পন্ন করেন অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে।

২০১৭-১৮ অর্থবছরের সরকারি অনুদানের ছবি ‘কালবেলা’। ছবির গল্প ২০০১ সালে আইন ও সালিশ কেন্দ্র কর্তৃক প্রকাশিত নারীর ৭১ ও যুদ্ধপরবর্তী কথ্যকাহিনি থেকে নেয়া। চলচ্চিত্রটির প্রধান দুই চরিত্র মতিন ও সানজিদা। মতিন চরিত্রে অভিনয় করেছেন শিশির আর সানজিদা চরিত্রে তাহমিনা অথৈ। পরিচালকের নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা ‘আকার’ থেকে ছবিটি নির্মিত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন