চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে ছিল ইংল্যান্ডের যমজ

তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের শেষটিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ইংলিশদের জার্সিতে ম্যাচে দুই যমজ ভাইকে একসাথে মাঠে দেখা গেছে। হেডেংলি টেস্টে জেমি ওভারটনের অভিষেক হলেও যমজ ভাইদের মধ্যে বড় ক্রেইগ ওভারটনের একাদশে সুযোগ হয়নি। তবে ফিল্ডিংয়ে ছিলেন তিনিও।

সিরিজের শেষ ম্যাচে আগে ব্যাট করে শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেট খরচায় ২২৫ রান তুলে দিনের খেলা শেষ করেছে কিউইরা। সিরিজে ২-০-তে এগিয়ে বেন স্টোকসের দল।

Reneta June

ম্যাচে টেস্ট অভিষেক হয় জেমির। তাকে ক্যাপ পড়িয়ে দেন বড় ভাই ক্রেইগ। ম্যাচে ১৬ ওভার হাত ঘুরিয়েছেন জেমি। তুলেছেন গুরুত্বপূর্ণ ডেভন কনওয়ের উইকেট। একাদশে জায়গা হয়নি স্কোয়াডে থাকা বোলিং অলরাউন্ডার ক্রেইগের। তবে জনি বেয়ারস্টোর বিকল্প হিসেবে মাঠে নামেন ২৮ বর্ষী। তাতেই হয়েছেন শিরোনাম।

বিজ্ঞাপন

তবে রেকর্ড বই ঘাঁটলে দেখা যায় যমজ হিসেবে মাঠে নামা তারাই একমাত্র ক্রিকেটার নন। এর আগে ১৯৯১ সালে অস্ট্রেলিয়ার জার্সিতে খেলেছেন দুই কিংবদন্তি স্টিভ ওয়া ও মার্ক ওয়া। এই দুই অজি যমজের বহু আগে ইংল্যান্ডের জার্সিতে ১৯৩৯ থেকে ১৯৬০ সাল পর্যন্ত ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেট রাঙিয়েছেন যমজ অ্যালেক এবং এরিক বেডসার। নিউজিল্যান্ডের হামিশ এবং জেমস মার্শালকেও নিয়মিত মাঠে দেখা গেছে।

ম্যাচে ছোট ভাই জেমির অভিষেক হলেও তার বহু আগে ২০১৭ সালে অ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যাডিলেডে অভিষেক হয় ক্রেইগের। ইংলিশদের জার্সিতে খেলেছেন ৮টি টেস্ট।

শেষ টেস্টে ১৩৫ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর ম্যাচে ফেরার চেষ্টা অব্যাহত রাখে ড্যারেল মিচেল এবং টম ব্লান্ডেল জুটি। মিচেল ৭৮ রানে ও ব্লান্ডেল ৪৫ রানে অপরাজিত আছেন। ইংলিশ বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ দুটি করে উইকেট তুলেছেন স্টুয়ার্ড ব্রড ও জ্যাক লিচ।