চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সামান্য ‘নো’ বল নিয়ে বিতর্কে এমন হত্যাকাণ্ড!

এসএসসির ফলাফল হাতে শিক্ষার্থী ও তাদের প্রিয়জনদের যখন উচ্ছ্বাস তখন ভাল ফল পেয়েও ব্যতিক্রম মিরপুরের একটি পরিবার। শোকের মাতমে ভারি হয়ে ছিল বসতি হাউজিংয়ের ১০/সি নম্বর বাড়িটি। পরিবারের আর্ত চিৎকারে আশে পাশের বাসিন্দাদের চোখ দিয়ে জল গড়িয়ে পড়ছিল। চোখের জলে মকলের আলোচনায় এস এস সি পরীক্ষায় বাবুলের ভাল ফল, তার মৃত্যু ও ক্রিকেট। নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবেশে অটো মোবাইলস মেকানিকের সন্তান হয়ে জিপিএ-ফাইভ পাওয়া ছেলেটির অর্জনে পরিবারের স্বপ্ন আরো বেড়ে যাওয়ারই কথা ছিল! কিন্তু এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশের ঘণ্টাখানেক আগে ক্রিকেট খেলার ‘নো’ বলকে…

ব্রিটিশদের ঔপনিবেশিক চাল

‘ভারতবাসীরা খরগোশের মতো বাচ্চা দেয়’- কথাটি বলেছিলেন ১৯৪৩ এর দুর্ভিক্ষের জনক তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল। তিনি ভারতবাসীকে প্রচন্ড ঘৃণা করতেন, আর এও মনে করতেন এরা পরিপূর্ণ খাবার পেলে প্রতি বছরই বাচ্চা উৎপাদন করবে। তাই তাদের খাদ্যের অভাবে মারা উচিত এবং তাহলেই ভারতবর্ষে জনসংখ্যার ভারসাম্য আসবে। স্থানীয় চোর, ক্ষমতা লোভী ও দুর্বৃত্তদের সঙ্গে একত্রিত করে পলাশীর যুদ্ধে নবাব সিরাজ-উদ-দৌলার পরাজয়ের মাধ্যমে ভারতে ব্রিটিশ রাজের ঔপনিবেশিক শাসনের সূত্রপাত হয়। অর্থাৎ বাংলা থেকেই ব্রিটিশ রাজের যাত্রা শুরু হয়। আর হঠাৎ করেই…

শরণার্থী গ্রহণে জার্মান উদারতার পেছনে যে স্মৃতি

শুরুটা করেছিলো জার্মানি, যখন পুরো ইউরোপ শরণার্থীদের প্রবেশের বিপক্ষে ছিলো। জামার্নের শরণার্থী গ্রহণের কারণ দ্বিতীয় মহাযুদ্ধে জার্মানির বেশিরভাগ মানুষই শরণার্থীই ছিলো। তারা পুরনো স্মৃতি ভুলতে পারেনি, তেমনি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলো এবং অন্য দেশগুলোকেও অনুরোধ করেছিল সাহায্য করতে। এমনকি মুসলমানদের জন্য অনেক জার্মান ইহুদি সাহায্যের জন্য এগিয়ে এসেছে।এ বছর তাই দেশটি আট লাখ শরণার্থীকে আশ্রয় দেওয়ার ঘোষণার পরও এই সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়ে যাবে। যুদ্ধের হাত থেকে প্রাণে বাঁচতে পালিয়ে আসা মানুষগুলোকে আশ্রয় দেওয়া ছাড়া জার্মানির কোনো…

পাকিস্তানী মানসিক প্রতিবন্ধীদের সুস্থ করা মানবিক দায়িত্ব

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরিপ অনুযায়ী, পৃথিবীতে মোট জনসংখ্যার ১০ ভাগ প্রতিবন্ধী। তাদের মধ্যে বড় অংশ প্রতিবন্ধী মানসিকভাবে। কেউ কেউ মনে করেন, পাকিস্তানী সাবেক ক্রিকেটার এবং ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজাও তাদের একজন। বাংলাদেশের কাছে সাউথ আফ্রিকা পর পর দুটি ম্যাচে বিশাল ব্যবধানে হারার পর রমিজ রাজা তার টুইটারে লিখেছেন: বাংলাদেশ এবং সাউথ আফ্রিকার মধ্যে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ম্যাচ দুটি আইসিসিকে তদন্ত করে দেখার জন্য অনুরোধ করছি এবং আমি বিশ্বাস করি যে, বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন ট্রফিতে খেলা নিশ্চিত করার জন্যই সিএসএ’র সঙ্গে চুক্তি করেছিলো।মূলত: ২০১৭…