চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Cable

নাম নিয়ে নজরুল

ছোটবেলায় বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামকে নিয়ে ছড়া শুনেছিলাম- “নজরুল/ তুমি করেছ ভুল/ দাড়ি না রেখে রেখেছ বাবরি চুল।” শুধু মুসলমান হিসেবেই নয়, ‘নজরুল’ শব্দের শেষ অক্ষরের (syllable) সাথে ‘চুল’ ও ‘ভুল’ দিয়ে ধ্বনি মিল ঘটে বলেই হয়তো প্রচলিত ছড়াতে এরকমটি বলা হয়েছিল। তবে এই বাবরি চুল একবার বেশ কাজেই লেগেছিল। বন্ধুদের সাথে কলকাতা থেকে বেড়াতে এসেছিলেন ঢাকায়। কিন্তু থাকবেন কোথায়? সঙ্গী সবাই হিন্দু, তাদের কোনো আত্মীয় তো আর মুসলমান নজরুলকে রাখবেন না। বন্ধুরা ঠিক করলেন, হিন্দু পরিচয়েই তাকে কোথাও গছাতে হবে। স্বাস্থ্যবান নজরুলের গায়ে ছিল…

শিলাইদহ: কবির জন্মস্থান জোড়াসাঁকোর চেয়ে সত্য জেনো

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর যেমনটি বলেছিলেন, “রাশিয়ায় অবশেষে আসা গেল।” আমিও তেমনটি বলতে পারি- ‘জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িতে অবশেষে আসা গেল।’ এই তীর্থস্থান দর্শন বেশ দেরিতেই হলো আমার। গিয়েছিলাম বিগত বছরের শেষ সপ্তাহে। যথারীতি সবার মতোই আমিও ‘ভ্রমি বিস্ময়ে’- এক তলা থেকে আরেক তলা, এ-ঘর থেকে ও-ঘর ঘুরছি। তবে যে ঘরটিতে এসে শিহরিত-স্তম্ভিত হয়ে পড়ি, সেটি কবির আঁতুড় ঘর। শুধু বিশ্বকবি নন, তাঁর পিতা দেবেন্দ্রনাথসহ ঠাকুর বংশের অনেকেই সে ঘরে জন্ম নিয়েছিলেন। শিহরিত হওয়ারই কথা। কিন্তু স্তম্ভিত কেন? এতো ছোট্ট কক্ষ! অন্য কক্ষগুলোর হিসেবে এটিকে কক্ষ বলা চলে…

সাঁইয়ের সক্রেটিসীয় প্রস্থান

লালনের (১৭৭৪-১৮৯০) টানে সারাবছরই কুষ্টিয়ায় দেশ-বিদেশের বাউল-ভক্ত-অনুরাগী-অনুসন্ধিৎসুর আনাগোনা চলে। তবে দোলপূর্ণিমা ও পহেলা কার্তিক ফকির লালন সাঁইয়ের তিরোধান দিবস উপলক্ষে যে দুটো বাৎসরিক অনুষ্ঠান হয় তাতে যোগ দেয় লাখ লাখ মানুষ। পুরো শহরটাই কয়েকদিন উৎসব-আমোদে মেতে ওঠে। অবশ্য মূলমঞ্চ বা লালনের সমাধিক্ষেত্র ছেঁউড়িয়া কুষ্টিয়া শহরের প্রান্তবর্তী হলেও সদর উপজেলার অন্তর্ভুক্ত নয়। গ্রামটি কুমারখালী উপজেলার অংশভূত। অর্থাৎ একরকম পশ্চাৎপদ এলাকাই বলা চলে। এখনও অনুষ্ঠান চলাকালেই উৎসবপ্রাঙ্গণ হতে পশ্চিমে একটু এগোলেই কুষ্টিয়া শহরের যে…

রবীন্দ্রনাথ: পশু-পাখি পালন প্রসঙ্গে

‘ওদের সাথে মেলাও যারা চরায় তোমার ধেনু’-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (১৮৬১-১৯৪১) এমনটি বলেছিলেন এক সুগভীর আধ্যাত্মিক অনুভবে, কিন্তু আক্ষরিক অর্থে যদি কথাটিকে ধরি, তবে সেক্ষেত্রেও এর যথার্থ্য তাঁর কর্মসাধনায় খুঁজে পাওয়া যাবে। যেমন বলেছেন আরেক গানে- ‘চরবে গোরু খেলবে রাখাল ওই মাঠে’, তেমনটি শিল্পের খেলা (ভারতীয় ধর্মদর্শন মতে শিল্প হচ্ছে স্রষ্টার শ্রেষ্ঠ লীলা) খেলতে খেলতেও মাঠে চরে বেড়ানো অবলা প্রাণীদের প্রতিও দায়িত্বপূর্ণ দেখভাল করেছেন তিনি। পশুচারণক্ষেত্রের সংকট থেকে শুরু করে পশুখাদ্য বৃদ্ধির উপায় ও পশুপাখির প্রতি ব্যবহারবিধি নিয়েও কথা…