চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

৩২ বছরের অনিষ্পন্ন মামলাটি তিন মাসের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ

৩২ বছর অনিষ্পন্ন থাকা সীমা হত্যা মামলাটি আগামী তিন মাসের মধ্যে বিচারিক আদালতকে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

সীমা হত্যার বিলম্বিত বিচার নিয়ে পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন হাইকোর্টের নজরে আনেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইশরাত হাসান। এরপর বিচারপতি এম, ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ তিন মাসের মধ্যে মামলাটি নিষ্পত্তির নির্দেশ দেন। এছাড়া যে ডাক্তার সাক্ষীর জন্য এই মামলাটি আটকে আছে, তার সাক্ষ্য না পাওয়া গেলে অন্যান্য সকল ডকুমেন্টের আলোকে মামলাটি নিষ্পিত্তি করতে বলা হয়েছে।

Reneta June

সীমা হত্যার বিলম্বিত বিচার নিয়ে গত ৬ অক্টোবর পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘পুরোন ঢাকার জগন্নাথ সাহা রোডে ১৯৮৮ সালের ২৬ এপ্রিল খুন হন সীমা মোহাম্মদী (২০)। বাড়িতে ঢুকে ছুরিকাঘাত করে সীমাকে হত্যা করে মোহাম্মদ আহমদ ওরফে আমিন নামে এক যুবক।

বিজ্ঞাপন

এরপর ওই যুবকের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় হত্যা মামলা করে সীমার মা ইজহার মোহাম্মদী। পরবর্তীকালে মামলার তদন্তে উঠে আসে সীমাকে বিয়ে করতে না পেরে সে তাকে হত্যা করে। এদিকে আসামি পলাতক থাকায় ১৯৯৯ সালের ২২ জুন তাকে হাজিরের জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়। এরপর মামলার অভিযোগ গঠনের পর সাক্ষিদের অনুপস্থিত কারনে বিচার কাজ বার বার পিছিয়ে যায়। বর্তমানে ঢাকার আদালতে মামলাটি বিচারাধীন। এই মামলার সাক্ষ্য গ্রহনের জন্য এখন পর্যন্ত ১১২ বার তারিখ পড়েছে। আর আদালতের ১১ জন বিচারক বদলেছে।