চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

১৩ ওয়েটার পদে ৭ হাজার আবেদন, বেশির ভাগই স্নাতক

ভারতের একটি সরকারি ক্যান্টিনে খাবার পরিবেশনের জন্য ১৩টি ওয়েটারের পদের জন্য আবেদন পড়েছে ৭ হাজার। এসব আবেদনকারীদের বেশির ভাগই স্নাতক ডিগ্রি পাস।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, শেষ পর্যন্ত ১৩টি পদে ১২ জন স্নাতক এবং একজন উচ্চ মাধ্যমিক পাস করা আবেদনকারীকে নিয়োগ দিতে যাচ্ছে মহারাষ্ট্র সরকার৷

বিজ্ঞাপন

মহারাষ্ট্র সরকার জানায়, একটি ক্যান্টিনে সম্প্রতি ১৩টি ওয়েটারের পদ খালি হয়৷ সেই খালি পদে লোক নিতে বিজ্ঞাপন দেয় সরকার৷ আবেদনকারীদের যোগ্যতা চতুর্থ শ্রেণি পাস চাওয়া হলেও, প্রায় ৭ হাজার উচ্চ শিক্ষিত বেকার এই পদের জন্য আবেদন করে৷

এ জন্য গত বছর ডিসেম্বরে ১০০ নম্বরের একটি লিখিত পরীক্ষাও নেয়া হয়৷ নিয়োগ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আট জন পুরুষ ও পাঁচ জন মহিলা প্রার্থীকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে ক্যান্টিনের ওয়েটার পদে৷

বিজ্ঞাপন

তার মানে এখন চতুর্থ শ্রেণি পাসের পরিবর্তে ক্যান্টিনের টেবিল পরিস্কার করবেন স্নাতকরা৷ এই নিয়োগের পর সমালোচনায় মুখে পড়ে সরকার৷

সরকারের এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করে বিরোধীদল নেতা ধনঞ্জয় মান্ডে বলেন, মন্ত্রী ও আমলাদের লজ্জা হওয়া উচিত৷ মন্ত্রীদের অনেকের থেকে বেশি শিক্ষিত এই ১৩ জন৷ তাদের কাছ থেকে পরিষেবা নিতেও তো লজ্জা হওয়া উচিত মন্ত্রী ও আমলাদের৷

‘‘১৩টি পদের জন্য সাত হাজার আবেদন পত্র জমা পড়েছে৷ এতেই পরিস্কার রাজ্যে চাকরির কী অবস্থা৷ তবে চতুর্থ শ্রেণি পাসের বদলে স্নাতকদের ক্যান্টিনে ওয়েটার পদে নিয়োগের ঘটনা খুবই দুর্ভাগ্যের৷’’

তিনি বলেন, ২০১৮ সালে প্রায় এক কোটি চাকরিজীবী তাদের চাকরি হারিয়েছেন। যাদের মধ্যে ৬৫ লাখ নারী।

সম্প্রতি মহারাষ্ট্র পুলিশের এক নিয়োগে ৮৫২টি খালি পদের জন্য ১০ লক্ষ আবেদন জমা পড়ে।