চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হৃদয়ে মাটি ও মানুষ নিয়ে পিএইচডি গবেষণা

কৃষি বিষয়ক তথ্যমূলক টেলিভিশন অনুষ্ঠান হৃদয়ে মাটি ও মানুষ নিয়ে এবার হয়েছে পিএইচডি গবেষণা। গবেষণায় উঠে এসেছে অনুষ্ঠানটির উপস্থাপক ও নির্মাতা শাইখ সিরাজের কৃষি বিষয়ক গণমাধ্যম কার্যক্রমের ৪০ বছরে কৃষকের প্রাপ্তি আর কৃষির বহুমুখি উন্নয়ন প্রসঙ্গ।

মানুষের কাছে কৃষির তথ্য জনপ্রিয় করে তোলার ক্ষেত্রে আশির দশকের শুরুতে বড় এক ভূমিকা নিয়ে আসে বাংলাদেশ টেলিভিশনের ‘মাটি ও মানুষ’ অনুষ্ঠান। শাইখ সিরাজের উপস্থাপনা আর অনুষ্ঠানের বিষয় বৈচিত্র্যর কারণে কৃষি অর্থনীতিতে তখন থেকেই সূচনা ঘটতে থাকে নতুন এক বিপ্লবের। তারই ধারাবাহিকতায় চ্যানেল আইতে শুরু হয় হৃদয়ে মাটি ও মানুষ অনুষ্ঠান।

বিজ্ঞাপন

চৌদ্দ বছরে হৃদয়ে ‘মাটি ও মানুষ’ অনুষ্ঠান শুধু জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ওঠেনি, কৃষি ও কৃষকের সঙ্গে সমাজের সকল স্তরের এক গভীর বন্ধন গড়ে উঠতে শুরু করেছে। বিষয়টি নিয়ে এর আগে নানামুখী গবেষণা হলেও এবার প্রাতিষ্ঠানিক সর্বোচ্চ ডিগ্রি পিএইচডি গবেষণায় অনুষ্ঠানটির বহুমুখি প্রভাব তুলে এনেছেন সহযোগী অধ্যাপক শেখ শফিউল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

গবেষণা বলছে, দেশের ৯৭ শতাংশ মানুষের কাছে হৃদয়ে মাটি ও মানুষ পৌঁছতে পেরেছে জরুরি তথ্য। কৃষিকাজে এ অনুষ্ঠানের তথ্য কাজে লাগাচ্ছেন ৪ ভাগের ৩ ভাগ কৃষক। নীতি নির্ধারকদের সঙ্গে কৃষকের সরাসরি সংযোগ গড়েছে এ অনুষ্ঠানের নিয়মিত আয়োজন কৃষি বাজেট কৃষকের বাজেট। সবকিছু ছাপিয়ে কৃষকসহ সব শ্রেণীপেশার গ্রহণযোগ্যতার কেন্দ্রে রয়েছেন অনুষ্ঠানের স্বপ্নদ্রষ্টা শাইখ সিরাজ।

টানা পাঁচ বছরের গবেষণায় শেখ শফিউল ইসলাম মাঠ পর্যায়ের বহুমুখি তথ্যের সন্নিবেশ ঘটিয়েছেন পিএইচডি অভিসন্দর্ভে। এর মধ্য দিয়ে উঠে এসেছে একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানের অভাবনীয় শক্তি ও প্রভাব।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিও রিপোর্টে 

Bellow Post-Green View