চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হারের আগে লড়ে যাচ্ছে লঙ্কানরা

লঙ্কান অধিনায়ক দীনেশ চান্দিমাল ও টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান কুশাল মেন্ডিসের ব্যাটিং দৃঢ়তায় পঞ্চম দিনে গড়াল স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ও সফরকারী শ্রীলঙ্কার বক্সিং-ডে টেস্ট। ক্রাইস্টচার্চে লঙ্কানদের হার এড়ানোর সম্ভাবনা তৈরি না হলেও তৃতীয় দিনেই ৬৬০ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয়া কিউইরা এখনও ম্যাচ জেতেনি, সেটিও তো অনেক বড় ব্যাপারই!

২ উইকেটে ২৪ রান নিয়ে খেলতে নামা শ্রীলঙ্কা চতুর্থ দিনের শুরুতে সমর্থকদের এনে দেয় স্বস্তি। দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান দীনেশ চান্দিমাল ও কুশাল মেন্ডিস ধীর-স্থির ব্যাটিং করে রীতিমত উইকেট কামড়ে পড়ে ছিলেন।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটানো নিউজিল্যান্ডকে তৃতীয় উইকেটের দেখা পেতে করতে হয়েছে আরও ৫৩ ওভার! এই সময়ে কিউই বোলারদের ধৈর্যের পরীক্ষা নিয়ে চান্দিমাল ও মেন্ডিস স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ১১৫ রান।

পার্টনারশিপটা ভাঙে মেন্ডিসের বিদায়ে। ১৪৭ বলের মোকাবেলায় ১০টি চারের সাহায্যে ৬৭ রান করা এ ব্যাটসম্যান বিদায় নেন নিল ওয়াগনারের শিকার হয়ে। তবে এত সহজে ‘মচকে’ যাননি অধিনায়ক চান্দিমাল।

Advertisement

চান্দিমালকে ক্রিজে রেখেই সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ ২২ রান করে সাজঘরে ফিরে যান রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে। এরপর রোশেন সিলভার সঙ্গেও চান্দিমাল বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটিয়েছেন ক্রিজে। অবশেষে দলীয় ১৫৮ রানে চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে যখন আউট হন, তখন নামের পাশে মাত্র ৫৬ রান থাকলেও ততক্ষণে খেলে ফেলেছেন ২২৮ বল!

চান্দিমালের বিদায়ের পর অবশ্য খেই হারায় শ্রীলঙ্কা। অল্প বিরতি রেখে বিদায় নেন সিলভা ও নিরোশান ডিকেভেল্লাও। শেষপর্যন্ত ইনিংসে ১০৪ ওভার ব্যাট করা শ্রীলঙ্কা চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করে ৬ উইকেটে ২৩১ রান নিয়ে।

দিলরুয়ান পেরেরা ও সুরাঙ্গা লাকমাল অপরাজিত রয়েছেন যথাক্রমে ২২ ও ১৬ রানে। হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে পড়া ম্যাথুজ পঞ্চম দিন আবারও ব্যাট হাতে নামতে পারবেন কিনা তা নিশ্চিত নয়। তিনি খেলতে না পারলে ধরে নেয়া যায়, শেষদিনে ম্যাচ বাঁচাতে শ্রীলঙ্কার হাতে রয়েছে মাত্র তিনটি উইকেট।

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে নিল ওয়াগনার তিনটি এবং টিম সাউদি দুটি উইকেট নেন। এছাড়া প্রথম ইনিংসে আগুন ঝরানো রেন্ট বোল্ট নেন একটি উইকেট।