চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

স্মৃতিতে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের ‘ফ্ল্যাট উইকেট’

দেড় যুগের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে বহুবার বাংলাদেশে এসেছেন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। আন্তর্জাতিক সিরিজের পাশাপাশি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলতেও আসা হয়েছে বেশ কয়েকবার। যে কারণে টাইগার ক্রিকেট সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণাই রাখেন জিম্বাবুয়ের সবচেয়ে অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার।

বাংলাদেশের মাটিতে খেলেই মাসাকাদজা আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন। শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাওয়া ত্রিদেশীয় টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলে ব্যাট-প্যাডের সঙ্গে তুলে রাখবেন লাল জার্সি, সবুজ ক্যাপ।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে ম্যাচ মাসাকাদজার শেষের শুরু। বিদায়ের প্রাক্কালে জিম্বাবুয়ের সফল এই ক্রিকেটার ফিরে গেলেন অনেকটা পেছনে। ঝাপসা হয়ে আসা স্মৃতির ভেলায় মনে করতে পারলেন বাংলাদেশে প্রথমবার এসে পেয়েছিলেন অত্যন্ত ফ্ল্যাট উইকেট। দীর্ঘসময় পর বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের ২২ গজকে ব্যাটিং স্বর্গের সঙ্গেই তুলনা করেছেন জিম্বাবুয়ের বিদায়ী টি-টুয়েন্টি অধিনায়ক।

বিজ্ঞাপন

‘সম্ভবত তখন আমরা দুটি ম্যাচ খেলেছিলাম বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে। আমি যেটি মনে করতে পারছি তা-হল, উইকেট খুবই ব্যাটিং সহায়ক ছিল। বিশ্বের সেরা ব্যাটিং উইকেট মনে হয় সেটিকেই।’

একটা সময় বাংলাদেশের মূল ক্রিকেট ভেন্যু ছিল ঢাকার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে। বর্তমানে যেটি ফুটবলের আঁতুড়ঘর। ২০০৬ সালে ক্রিকেট মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে স্থানান্তরিত হওয়ার আগ পর্যন্ত সব লড়াই হতো সেখানে। আর সেখানকার উইকেট এতটাই ফ্ল্যাট ছিল যে, বিশ্বের বাঘা বাঘা ক্রিকেটারদের প্রিয় ভেন্যুর তালিকায় থাকত।

ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরুর আগে সংবাদ সম্মেলনে মাসাকাদজার চোখেমুখে ধরা পড়ল সন্তুষ্টির ছাপ। বড় কোনো অতৃপ্তি ছাড়াই শেষ করতে যাচ্ছেন ক্যারিয়ার, ‘আমার মনে হয় ক্যারিয়ারটা লম্বা ও সাফল্যমণ্ডিত ছিল। উত্থান-পতন থাকেই। তবে আমি বলব, পুরো সময়টা উপভোগ করেছি।’

Bellow Post-Green View