চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুদের টাকা দিতে না পারায় গৃহবধুকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

কক্সবাজারের চকরিয়ার বরইতলীতে সুদের মাত্র দুই হাজার টাকাকার জন্য এক গৃহবধুকে গাছে বেঁধে নির্যাতন করেছে শওকত আলম নামের এক ব্যক্তি। নির্যাতনের শিকার ওই নারী বরইতলীর ৮ নং ওয়ার্ডের মোড়াপাড়া এলাকার আলী হোসেনের স্ত্রী নুর আয়েশা (২৪)।

পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বিকেল তিনটার দিকে বরইতলীর মোড়া পাড়া এলাকার আলী হোসেনের স্ত্রী নুর আয়েশা একই এলাকার জহির আলমের ছেলে শওকত আলম থেকে ৫ হাজার টাকা সুদে ঝণ নেন। সেই টাকার সুদের বাবদ চার হাজার টাকা দিলেও বাকি দুই হাজার টাকার জন্য নুর আয়েশার পরণে থাকা শাড়ি দিয়ে তাকে গাঁছে বেধে নির্যাতন করে শওকত। সেরকম একটি ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর নড়চড়ে বসেছে প্রশাসন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বরইতলী ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নিয়াজুল ইসলাম বাদল বলেন: সুদের ২ হাজার টাকা না দেয়ায় নুর আয়েশাকে নির্যাতন চালিয়েছে শওকত। পরে শওকত পালিয়ে গেলেও বুধবার দুপুরে তার বাবা জহির আলমকে আটক করেছে পুলিশ। একইসঙ্গে ওই নারীকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বরইতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জালাল আহমেদ বলেন: নির্যাতনের শিকার নারীকে সর্বাত্মক সহযোগীতা করা হবে। একইসঙ্গে অভিযুক্তকে ধরতে তৎপরতা চলছে। যেকোন সময় পুলিশের সহায়তায় তাকে আটক করা হবে।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন: গৃহবধুকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। আসামী শওকতকে আটকে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বিজ্ঞাপন