চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘সরকার ভয়ে খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি দিচ্ছে না’

সরকার খালেদা জিয়াকে ভয় পায় বলেই তাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রোববার ১৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আপনারা জানেন, বেগম জিয়ার মুক্তির বিষয়ে তার পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে। তিনি যখন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন, তখনো পরিবারের পক্ষ থেকে বিদেশ যাওয়ার জন্য একটা আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু সরকার সেটা দেয়নি। এবারও সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ানো হলেও বিদেশ যেতে পারবেন না বলে একটা শর্ত জুড়ে দিয়েছেন।’

বিজ্ঞাপন

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘মূল বিষয় হচ্ছে, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে তারা (সরকার) এত বেশি ভয় পান এজন্য তাকে দেশের বাইরে যাওয়া অথবা মুক্ত করার বিষয়টা ভাবতেই পারেন না। চিকিৎসক এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যখন বলছে, বেগম জিয়ার উন্নত ট্রিটমেন্ট প্রয়োজন তখন সরকার অনুমতি দিচ্ছে না, তাকে আটকে রেখেছে।’

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘জনগণকে বিভ্রান্ত করার লক্ষ্যেই শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও তার সমাধি সম্পর্কে মিথ্যা এবং বানোয়াট তথ্য উপস্থাপন করা হচ্ছে। মূলত জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনকে দৃষ্টির আড়ালে রাখার একটি ষড়যন্ত্র করছে সরকার। এভাবে ইতিহাস বিকৃত করে জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করা হচ্ছে। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের বিরুদ্ধে এ ধরনের বিকৃত অপপ্রচার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে চক্রান্ত ব্যতীত কিছু নয়।’

সবাইকে এ ধরনের মিথ্যাচার থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার, শায়রুল কবির খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।