চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সপ্তাহে দুইবার করোনা পরীক্ষার সুযোগ দিচ্ছে ইংল্যান্ড

ইংল্যান্ডে সবাইকে সপ্তাহে দুইবার করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরীক্ষা করার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। দেশটির সরকারের বিস্তৃত পরীক্ষণ পদক্ষেপের অংশ হিসেবে শুক্রবার থেকে এ সুযোগ পাবে ইংল্যান্ডের বাসিন্দারা।

ল্যাটেরাল ফ্লো টেস্ট কিট দিয়ে ৩০ মিনিটেই পাওয়া যাবে ফলাফল আর কিটটি পাওয়া যাবে সেখানকার সব পরীক্ষণ কেন্দ্রে ও ওষুধ বিতরণ কেন্দ্রে, এছাড়া পাঠানো হবে পোস্ট করেও।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এরইমধ্যে এই টেস্ট কিট স্কুলের শিক্ষার্থী ও তাদের পরিবারগুলোকে পাঠানো হয়েছে, সেই সঙ্গে তাদেরও পাঠানো হয়েছে যাদের এই মহামারীতেও কাজের জন্য ঘরের বাইরে যেতে হয়।

সেখানকার স্বাস্থ্য সচিব বলেছেন, যেহেতু লকডাউন শিথিল করা হয়েছে তাই এই পদক্ষেপে প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণ হবে।

তবে সমালোচকদের মতে, এতে অর্থ অপচয়ের কলঙ্ক তৈরির ঝুঁকি থাকবে।

বিজ্ঞাপন

ইংল্যান্ডে লকডাউন আরো শিথিল করার জন্য কেবিনেটের সঙ্গে আলোচনা করার কথা রয়েছে ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের। তাতে জরুরি নয় এমন কিছু দোকানও উন্মুক্ত করা হবে। পাব ও রেস্টুরেন্টের খাবার বাইরে পাঠানোর অনুমতি দেওয়া হবে ১২ এপ্রিল থেকে।

যাদের করোনাসংক্রমণের কোনো উপসর্গ নেই তারাও বাসায় নিয়ে এই কিট দিয়ে পরীক্ষা করাতে পারবেন।  মার্চে স্কুল খোলার পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই সেকেন্ডারি স্কুলের শিশু ও কর্মীদের জন্য এই ল্যাটেরাল ফ্লো পরীক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়।

ল্যাটেরাল ফ্লো টেস্টে যাদের পজিটিভ রেজাল্ট আসবে তাদের পরিবারের সবাইকে সেলফ আইসোলেশন করতে হবে। পরে তারা দ্বিতীয় পিসিআর করোনা টেস্টের আবেদন করতে পারবে। যদি সেখানে নেগেটিভ রেজাল্ট আসে তখন কোয়ারেন্টাইন ছেড়ে আবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবে।

সরকার বলছে, এই কিট দিয়ে ১০০০ জনের পরীক্ষা করলে একজনেরও কম ভুল পজিটিভ রেজাল্ট আসতে পারে।

ইংল্যান্ডে এরই মধ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৪৩ লাখ ৫৯ হাজারের বেশি মানুষ, আর প্রাণ হারিয়েছে ১ লাখ ২৬ হাজারের বেশি।