চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শিমূল ইউসুফের ৬০ উদ্‌যাপন

শিমূল ইউসুফকে ‘মঞ্চকুসুম’ নামে ডাকা হয়। তাকে এ উপাধি দেন সেলিম আল দীন। বাংলা অভিনয়রীতি বিকাশ ও শুদ্ধ সঙ্গীতচর্চায় অবদানের জন্য কবি বেগম সুফিয়া কামাল ও সেলিম আল দীন মিলে তাকে এ উপাধিতে ভূষিত করেন। গতকাল মঙ্গলবার শিমূল ইউসুফ পা রাখেন ৬০ বছরে। মঞ্চকুসুমের ষাটে পদার্পণ স্মরণীয় করে রাখতে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি মাঠে আয়োজন করা হয় ‘জয়ন্তী মঞ্চকুসুম ৬০ শিমূল’।

গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাতটায় আগতদের স্বাগত জানিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করেন অভিনেতা ও নির্দেশক আফজাল হোসেন। বক্তৃতা না করে অনুভূতি ভাগাভাগি করার জন্য চারজনকে মঞ্চে ডাকেন। শুরুতে নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার বলেন,  ‘৬০ বছর মানেই হলো জীবন শুরু। শিমূলের শিল্প যাত্রা ও অর্জনের দৈর্ঘ্য তার দৈর্ঘ্যের চেয়ে অনেক অনেকগুণ বেশি।’  তারাপদ রায়ের লেখা রম্যগল্প ‘জীবন বীমা’ পড়ে সবাইকে আনন্দ দেন রামেন্দু মজুমদার।

আবৃত্তিকার আশরাফুল আলম শিমূল ইউসুফকে উৎসর্গ করে আবিদ আজাদের লেখা একটি কবিতা আবৃত্তি করেন। শুধু শিমূল ইউসুফ নন, আবৃত্তিতে মুগ্ধ হন উপস্থিত সবাই। নির্দেশক আতাউর রহমান নিজের লেখা কবিতা আবৃত্তি শেষে উপহার দেন শিমূল ইউসুফকে। সুবীর নন্দী গাইলেন দ্বীজেন্দ্রলাল রায়ের লেখা ও সুর করা ‘মহা সিন্ধুর ওপার থেকে’ গানটি।

বিজ্ঞাপন

সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকি উত্তরীয় পরিয়ে দেন শিমূল ইউসুফকে। রূপা চক্রবর্তী, তামান্না রহমান, আসাম থেকে আসা অভিজিৎ বড়ুয়া, রুহুল আলম, আহকাম উল্লাহ, নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, গোলাম কুদ্দুস স্মৃতিচারণ করেন শিমূল ইউসুফকে নিয়ে। ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর।

এর ফাঁকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা নিয়ে হাজির হন প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সবিচ আশরাফুল আলম খোকন।

অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে শিমুল ইউসুফ বলেন, ‘আমি মুগ্ধ! মানুষের যে ভালোবাসা আমি পেয়েছে ততটা আশা করিনি।’ তিনি অশ্রুসিক্ত গলায় কলকাতার প্রয়াত গায়ক কালিকা প্রসাদ মজুমদারের কথা স্মরণ করেন। সেলিম আল দীনের কথা স্মরণ করেন। তিনি বলেন, ‘কালিকা প্রসাদ ও সেলিম আল দীন, দুজনেই ছিলেন শেকড় সন্ধানী।’ আগত শুভানুধ্যায়ীদের তিনি অনুরোধ করেন তাকে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য আনা ফুলগুলো কালিকা প্রসাদকে উৎসর্গ করতে। মঞ্চের মাঝে কালিকা প্রসাদের ছবি ঢেকে যায় ফুলে ফুলে। এ সময় মঞ্চের পাশ থেকে বাজানো ভায়োলিনের করুণ সুরে নীল হয়ে ওঠে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মাঠ।  শিমূল ইউসুফ ধ্যানমগ্ন হয়ে কালিকা প্রসাদকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘যেখানেই থাকো ভালো থেকো ভাই’।

বিজ্ঞাপন