চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শাহরুখের দুঃখ!

কোভিড আবহের মাঝেই শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) পর্দা উঠেছে ২৬তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের। এদিন বিকালে উৎসবের উদ্বোধন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে মুম্বাই থেকে ভার্চুয়ালি অংশ নিয়েছেন বলিউড বাদশা খ্যাত শাহরুখ খান।

এছাড়াও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজনে মমতার সামনে সরাসরি হাজির হয়েছেন ঋতুপর্ণা, দেব, গৌতম ঘোষ, কৌশিক সেন, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, তনুশ্রী, সোহম, পায়েল, অরিন্দম শীল, ঋতাভরী, অনুভব সিনহা প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

তবে অনুষ্ঠানে সরাসরি অংশ না নিতে পারায় দুঃখ প্রকাশ করে এই বলিউড কিং বলেন, ‘মহামারি আমাদের শিখিয়েছে পরিবার সবচেয়ে দামি। আর কলকাতা আমার পরিবার। পশ্চিমবঙ্গ আমার পরিবার। দ্রুত পশ্চিমবঙ্গে যাবো, সবার সঙ্গে আবারো দেখা করবো। করোনার কারণে এবারের উৎসবের সূচনাটা অনেকটাই অন্তর্জালের মাধ্যমে হচ্ছে। তবে আশা রাখছি এবছরই আমরা আবারো স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যেতে পারবো।’

এছাড়াও জনপ্রিয় এই অভিনেতা আরো জানান, ২০২০ সালের প্রায় পুরোটা সময় জুড়েই আমরা মহামারী দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি, তবে ২০২১ সালে আমাদের বর্ধিত পরিবারের জন্য নিবেদিত হতে হবে।

এদিকে মমতা তার উদ্বোধনী বক্তব্যে বলেন, ‘উৎসবের আগে আমরা অনেক গুণী শিল্পীকে হারিয়েছি। তার জন্য দুঃখ রয়ে গেছে।’

এছাড়া বাংলা ছবি আবার বিশ্বসভায় প্রথম জায়গা নেবে এমন আশা ব্যক্ত করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘টলিউড সবসময় হলিউড-বলিউডের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় থাকে। একদিন বলিউড, হলিউড টেক্কা দিয়ে বাংলা সিনেমা প্রথম জায়গা করে নেবে।’

এবারের উৎসব চলবে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। ইতোমধ্যেই উদ্বোধনী ছবি হিসেবে দেখানো হয়েছে ‘অপুর সংসার’।

এছাড়া উৎসবে ৪৫টি দেশের ৮১টি পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা এবং ৫০টি শর্টফিল্ম বাছাই করা হয়েছে। সেই তালিকায় রয়েছে ভ্রান্তবিলাস, সপ্তপদী, ছোটি সি বাত, দাদার কীর্তি সহ একাধিক ছবি। বাংলাদেশ থেকে এই চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হবে সুমিতের ‘নোনাজলের কাব্য’।