চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রোনাল্ডোকে দেখে ‘প্যান্ট ভিজিয়ে’ই ফেলছিলেন এই কিংবদন্তি!

নিজের সময়ে ছিলেন সেরাদের সেরা একজন। ব্রাজিল ও ফুটবল বিশ্বে নিজেকে পরিণত করেছেন কিংবদন্তিতে। টানা দুই মৌসুম ছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার, যা এখন পর্যন্ত রেকর্ড। সেসময়ের রোনাল্ডোকে দেখে উচ্ছ্বসিত হওয়াটাই স্বাভাবিক। উচ্ছ্বাস চেপে রাখতে না পেরে হাস্যকর এক অঘটনই ঘটিয়ে ফেলেছিলেন অ্যান্ডি কোল, যা নিজ মুখেই জানিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিংবদন্তি!

১৯৯৮ বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলা রোনাল্ডো সেবছর বার্সেলোনা থেকে সবচেয়ে দামি ফুটবলার হিসেবে যোগ দেন ইন্টার মিলানে। ১৯৯৮-১৯৯৯ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দলকে তোলেন কোয়ার্টার ফাইনালে। প্রথম লেগে ম্যানইউর মাঠ ওল্ড ট্রাফোর্ডে খেলা হয়নি তার, সেই ম্যাচটা রেড ডেভিলদের কাছে ২-০ গোলে হেরে যায় ইন্টার।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে ১৯৯৫ সালে ম্যানইউতে যোগ দেয়া কোলও তখন প্রতিষ্ঠিত তারকা এবং কোচ স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের সেরা অস্ত্রের একজন। ছয় মৌসুমে নামের পাশে এক ট্রেবলসহ ৯ শিরোপা ও ২৭৫ ম্যাচে ১২১ গোলই বলে দেয় সেসময় রোনাল্ডোর মানেরই খেলোয়াড় ছিলেন সাবেক ইংলিশ তারকা।

তবে রোনাল্ডোর নাম তার মাঝে আলাদা একধরনের উচ্ছ্বাস তৈরি করতো বলে বিউটিফুল গেম পডকাস্টে জানিয়েছেন কোল। ফেনোমেনন তার খুব পছন্দের খেলোয়াড় ছিলেন বলে জানিয়েছেন, ‘আমার মনে পড়ে আমরা একই মৌসুমে সান সিরোর টানেলে দাঁড়িয়েছিলাম, আর তখনই রোনাল্ডোকে দেখলাম। মিথ্যা বলবো না, তখন আমার প্যান্ট ভিজে যাওয়ার মতো অবস্থা হয়ে গিয়েছিল!’

‘এইতো সেই মানুষটা, যাকে বছরের পর বছর অনুসরণ করেছি। সান সিরোর টানেলে তাকে দেখে ভাবছিলাম, পাগল হয়ে যাচ্ছি। যখন আপনি সেরাদের সমপর্যায়ে থাকবেন, তখন বলতেই পারেন আমি তো এই মানের এই পর্যায়ের। আমি তো এরসঙ্গে একই মাঠে, একই পর্যায়ে খেলবো।’