চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে বানোয়াট খবর ঠেকাতে পারবে ফেসবুক?

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন মধ্যবর্তী নির্বাচনে ভোটারদের বিভ্রান্তি ঠেকাতে মিথ্যা তথ্য ও বানোয়াট খবর প্রচার নিষিদ্ধ করবে ফেসবুক। সামাজিক মাধ্যমটি জানিয়েছে গত নির্বাচনে ফেসবুককে ব্যবহার করে কেন্দ্রে সহিংসতা হয়েছে, ভোট কেন্দ্রের সামনে লম্বা লাইন এধরনের বিভ্রান্তিমূলক খবর ছড়ানো হয়েছিলো। এবার আর এরকম ভুয়া খবর ছড়ানোর মাধ্যম হবে না ফেসবুক।

এজন্য কড়া নজরদারী ও নিয়ন্ত্রণমূলক ব্যবস্থা নিশ্চিতে ব্যয় বৃদ্ধি করতে যাচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যমটি। আসলে এরকম কড়াকড়ি করতে বাধ্যই হয়েছে ফেসবুক। কারণ ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ফেসবুকে প্রচারিত বানোয়াট খবরের সরাসরি প্রভাব পড়েছিলো। অনেকে মনে করেন এসব বানোয়াট খবরে নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে গিয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বিজ্ঞাপন

এবার ভোট দেয়ার পদ্ধতি নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানো ঠেকাতে চায় ফেসবুক। কারণ গত নির্বাচনে ভোট দেয়ার পদ্ধতি নিয়ে ছড়ানো বানোয়াট খবরের কারণে অনেক ভোটারই ভোট দিতে পারেননি।

ফেসবুকের এসব পদক্ষেপ আদৌ কতটুকু কাজে আসবে তা নিয়ে সন্দেহ থাকছেই। কারণ ফেসবুক নিউজ ফিডের প্রডাক্ট ম্যানেজার টেসা লিয়ন্স বলেছেন,‘আমরা মনে করি, আমাদের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড লঙ্ঘন না করে বিশ্বাসযোগ্য কোন ব্যক্তি যদি কিছু পোস্ট করে এবং সেটা যদি মিথ্যা হয় তাহলেও সেটা সরানো উচিৎ নয়।’

তবে ভোট কেন্দ্র নিয়ে ছড়ানো খবর যদি বিভ্রান্তিকর মনে হয় তবে তা যাচাই করে দেখবে ফেসবুক। যাচাইয়ে যদি খবরটি মিথ্যা প্রমাণিত হয় তখনও সেটা সরিয়ে নেয়া হবে না। কিন্তু এই খবরটি যাতে কম সংখ্যক মানুষ দেখতে পারে সেব্যবস্থা করা যাবে।

বিজ্ঞাপন