চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মেসি-রোনালদোদের কারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে, কারা ইউরোপায়

ডামাডোল শেষ। ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লিগ পেয়ে গেছে চ্যাম্পিয়নদের। লিওনেল মেসির বার্সেলোনা, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর জুভেন্টাস বা সার্জিও রামোসের রিয়াল মাদ্রিদ, কোনো ক্লাবই দেখেনি শিরোপার মুখ। তবে তাদের কারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আর কারা ইউরোপায় খেলবে সেই হিসেবেও পড়তে হয়নি।

রিয়াল-বার্সা-বায়ার্ন-ম্যানসিটিকে পড়তে না হলেও অবশ্য অনেক জায়ান্ট ক্লাবের এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তো বটেই, খেলা হচ্ছে না ইউরোপায়ও। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে যেমন হ্যারি কেইনের টটেনহ্যাম হটস্পার নেই এই দুই প্রতিযোগিতায়, কেইন তো সেজন্য ক্লাব ছাড়তে চেয়ে বসে আছেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বাকিদের মধ্যে যারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ালিফাই করেছে, আর যারা ইউরোপা লিগে খেলবে, তাদের এক ঝলক দেখে নেয়া যাক।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ: ম্যানচেস্টার সিটি লিগ শিরোপা নিশ্চিত করেছে। নিশ্চিতভাবেই তারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলবে। সিটিজেনদের সঙ্গী হচ্ছে টেবিলের দুইয়ের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, তিনের লিভারপুল ও চারের চেলসি।

বিজ্ঞাপন

প্রিমিয়ার লিগ থেকে ইউরোপায় খেলবে লেস্টার সিটি ও ওয়েস্টহ্যাম ইউনাইটেড। টটেনহ্যাম বা আর্সেনাল এবার কেবলই দর্শক সেরাদের মঞ্চে। আর ফুলহ্যাম, ওয়েস্ট ব্রমউইচ অ্যালবিওন এবং শেফিল্ড ইউনাইটেড এ মৌসুমে নেমে গেছে প্রিমিয়ার লিগ থেকে।

স্প্যানিশ লা লিগা: অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ শিরোপা উঁচিয়ে ধরেছে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তাদের সঙ্গী টেবিলের দুইয়ের রিয়াল মাদ্রিদ, তিনের বার্সেলোনা ও চারের সেভিয়া। ইউরোপায় খেলবে রিয়াল সোসিয়েদাদ। অবনমন হয়েছে হুয়েস্কা, রিয়াল ভ্যালাদোলিদ ও এইবারের মতো ক্লাবের।

সিরি আ: ইতালিয়ান সিরি আ-তে এবার লিগ ট্রফি নিয়েছে ইন্টার মিলান। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তাদের সঙ্গী হবে দুইয়ের এসি মিলান, তিনের আটালান্টা ও চারের জুভেন্টাস। নাপোলি ও লাসিও খেলবে ইউরোপায়। অবনম হয়েছে বেনেভেন্টো, ক্রোটোনে ও পার্মার।

বুন্দেসলিগা: বরার্ট লেভান্ডোভস্কির বায়ার্ন মিউনিখই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। আসছে মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তাদের সঙ্গী টেবিলের দুইয়ের আরবি লেইপজিগ, তিনের বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ও চারের ভলফ্সবুর্গ। জার্মানি থেকে ইউরোপায় খেলবে ফ্রাঙ্কফুর্ট ও বেয়ার লেভারকুসেন। এফসি ক্লোন খেলবে রেলিগেশন প্লে-অফ। অবনমন হয়ে গেছে ভের্ডার ব্রেমেন ও শালকে জিরোফোরের।

ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ান: ফরাসি লিগে ১০ বছর পর চ্যাম্পিয়ন হয়েছে লিল। তারা এক পয়েন্টে পেছনে ফেলেছে নেইমার-এমবাপেদের পিএসজিকে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এই দুই ক্লাবই খেবে। তিনের মোনাকো খেলবে ইউরোপ সেরার কোয়ালিফিকেশন। ইউরোপায় খেলবে লিওঁ ও মার্শেই। নান্টেস খেলবে রেলিগেশনের প্লে-অফে। অবনমন হয়ে গেছে নেমেসঁ ও দিজোনের।