চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলাদেশের হতাশা বাড়াল আইসিসির দশকসেরা মনোনয়ন

নেই, কোথাও নেই! কি টি-টুয়েন্টি, ওয়ানডে আর টেস্ট; দশকসেরা যেন দূরের কথা। আফগানিস্তানের রশিদ খানকে টি-টুয়েন্টির সেরাদের দশকসেরা খেলোয়াড় মনোনয়ন দেয়া হলেও নারী-পুরুষ কোনো বিভাগেই ঠাই হয়নি একজন বাংলাদেশি ক্রিকেটারের।

২০১০ থেকে ২০২০- প্রথমবারের মতো দশকসেরা ক্রিকেটার নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি। দশকসেরা, টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টুয়েন্টি ও স্পিরিট অব দ্য ক্রিকেট- এই হচ্ছে ক্যাটাগরি। নারী-পুরুষ উভয় শ্রেণিতে দেয়া হবে অ্যাওয়ার্ড।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সব ক্যাটাগরিতে একটি নাম যথারীতি আছেই, বিরাট কোহলি। শচীন টেন্ডুলকার ও রিকি পন্টিংয়ের পর বিশ্ব ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানধারী ও তৃতীয় সর্বোচ্চ সেঞ্চুরিয়ানের (২১,৪৪৪ রান ও ৭০ সেঞ্চুরি) নাম না থাকাটাই বরং হত অস্বাভাবিক কিছু।

পাঁচ ক্যাটাগরির মনোনয়নে সবচেয়ে বেশি চার ক্রিকেটার ভারতের। কোহলি ছাড়াও দশকসেরা খেলোয়াড়ের তালিকায় আছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। দশকসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটারদের তালিকায় কোহলির সঙ্গে আছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং ওয়ানডেতে তিন ডাবল সেঞ্চুরিয়ান রোহিত শর্মা।

টি-টুয়েন্টিতে আফগান লেগ স্পিনার রশিদ খানের নাম থাকলেও কোথাও ঠাই হয়নি লম্বা সময় তিন ফরম্যাটে সেরা অলরাউন্ডারের শীর্ষস্থান ধরে রাখা সাকিব আল হাসানের।

দশকসেরা পুরুষ ক্রিকেটার
বিরাট কোহলি (ভারত), রবিচন্দ্রন অশ্বিন (ভারত), কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড), জো রুট (ইংল্যান্ড), স্টিভেন স্মিথ (অস্ট্রেলিয়া), এবি ডি ভিলিয়ার্স (সাউথ আফ্রিকা) এবং কুমার সাঙ্গাকারা (শ্রীলঙ্কা)।

দশকসেরা নারী ক্রিকেটার
এলিসে পেরি (অস্ট্রেলিয়া), মেগ ল্যানিং (অস্ট্রেলিয়া), সুজি বেটস (নিউজিল্যান্ড), স্টেফানি টেলর (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), মিতালি রাজ (ভারত), সারাহ টেলর (ইংল্যান্ড)।

বিজ্ঞাপন

দশকসেরা টেস্ট ক্রিকেটার
বিরাট কোহলি (ভারত), জো রুট (ইংল্যান্ড), কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড), স্টিভেন স্মিথ (অস্ট্রেলিয়া), রঙ্গনা হেরাথ (শ্রীলঙ্কা), জেমস অ্যান্ডারসন (ইংল্যান্ড), ইয়াসির শাহ (পাকিস্তান)।

দশকসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার
বিরাট কোহলি (ভারত), মহেন্দ্র সিং ধোনি (ভারত), রোহিত শর্মা (ভারত), কুমার সাঙ্গাকারা ও লাসিথ মালিঙ্গা (শ্রীলঙ্কা), মিচেল স্টার্ক (অস্ট্রেলিয়া) এবং এবি ডি’ভিলিয়ার্স (সাউথ আফ্রিকা)৷

দশকসেরা নারী ওয়ানডে ক্রিকেটার
এলিসে পেরি (অস্ট্রেলিয়া), মেগ ল্যানিং (অস্ট্রেলিয়া), সুজি বেটস (নিউজিল্যান্ড), স্টেফানি টেলর (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), মিতালি রাজ (ভারত) ও ঝুলন গোস্বামি (ভারত)।

দশকসেরা টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটার
রশিদ খান (আফগানিস্তান), বিরাট কোহিল ও রোহিত শর্মা (ভারত), ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), অ্যারন ফিঞ্চ (অস্ট্রেলিয়া), ইমরান তাহির (সাউথ আফ্রিকা), লাসিথ মালিঙ্গা (শ্রীলঙ্কা)।

দশকসেরা নারী টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটার
এলিসে পেরি (অস্ট্রেলিয়া), মেগ ল্যানিং (অস্ট্রেলিয়া), সোফি ডিভাইন (নিউজিল্যান্ড), ডিন্দ্রা দোতিন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), আনিয়া স্রাবসোল (ইংল্যান্ড)।

আইসিসির সহযোগী দেশগুলোর মধ্যে দশকসেরা ক্রিকেটার
কাইল কোয়েৎজার (স্কটল্যান্ড), কলাম ম্যাকলেয়ড (স্কটল্যান্ড), পরশ খড়কা (নেপাল), আসাদ ভালা (পাপুয়া নিউগিনি), পিটার বোরেন (নেদারল্যান্ডস), রিচি বেরিংটন (স্কটল্যান্ড)।

আইসিসির সহযোগী দেশগুলোর মধ্যে দশকসেরা নারী ক্রিকেটার
নাত্তাকান চানতাম (নেপাল), সরনোরিন তিপোচ (নেপাল), সানিদা সাত্থিরুয়াং (নেপাল), ক্যাথেরিন ব্রাইস (স্কটল্যান্ড), সারাহ ব্রাইস (স্কটল্যান্ড), স্টেরে ক্যালিস (নেদারল্যান্ডস)।

দশকসেরা আইসিসি স্পিরিট অব ক্রিকেট অ্যাওয়ার্ড
বিরাট কোহলি (ভারত), কেন উইলিয়াসন (নিউজিল্যান্ড), মিসবাহ-উল হক (পাকিস্তান), ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (নিউজিল্যান্ড), মাহেলা জয়াবর্ধনে (শ্রীলঙ্কা), ড্যানিয়েল ভেট্টোরি (নিউজিল্যান্ড), মহেন্দ্র সিং ধোনি (ভারত), ক্যাথেরিন ব্রান্ট (ইংল্যান্ড), আনিয়া স্রাবসোল (ইংল্যান্ড)।