চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বদলাতে পারে সৌদি যুবরাজ

সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ডের পরে রাজতন্ত্রের বিশ্বাসযোগ্যতা বজায় রাখতে সৌদি ক্রাউন প্রিন্স বা সৌদি যুবরাজ বদল করতে পারেন সৌদি আরবের রাজা। এমনটাই মনে করছেন সৌদি আরবে ব্রিটেনের কূটনৈতিক মিশনে সংযুক্ত একজন।

সৌদি আরব ও ইয়েমেনে ব্রিটেনের কূটনৈতিক মিশনে একসময় সম্পৃক্ত থাকা কর্নেল ব্রায়ান লিস বলেন, সত্যিকারের শাসক হিসেবে ক্রাউন প্রিন্সের দিনগুলো চিহ্নিত। রাজা সালমান হয়তো এই মামলাটি খারাপভাবে নিয়ন্ত্রণ করায় তাকে বদলাবেন।

আল সাউদ রুলিং ফ্যামিলি অব সৌদি আরব বইয়ের লেখক কর্নেল লিস রুদাওকে বলেন, সৌদিরা কখনোই মানবে না যে যু্বরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান নিন্দনীয় ছিলো, তাই বলে সেটা পরিষ্কার হয়ে যায় না। আমি মনে করি রাজা সবচেয়ে পরিচ্ছন্ন সময়ে আছেন বলেই ভাবছেন। তাই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে তিনি যুবরাজ বদলাতে পারেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি যোগ করেন, তবে সেটা খুব দ্রুতই হবে না, হয়তো কয়েক মাসেও হবে না। কারণ তাহলে সেটা বিদেশি চাপের কাছে মাথা নত করার মতো দেখাবে। সেক্ষেত্রে সবচেয়ে কার্যকর প্রযুক্তি স্পেশাল অ্যাডভাইজরি কাউন্সিলের ব্যবহার করতে পারেন তিনি। তাতে রাজতন্ত্রের বিশ্বাসযোগ্যতা আবার পুন:প্রতিষ্ঠা হবে।

ইস্তাম্বুলে সৌদি দূতাবাসের ভেতরে প্রবেশের পরে নিখোঁজ হওয়া সাংবাদিকে জামাল খাশোগির মৃত্যুতে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানে সম্পৃক্ততার অভিযোগ উঠে। সমালোচকদের সন্দেহ যুবরাজ এই হাই প্রোফাইল অপারেশনের নির্দেশ দিয়েছেন অথবা তিনি এই সম্পর্কে জানেন।

সৌদি প্রসিকিউটররা বলছেন, এই হত্যাকাণ্ড পরিকল্পিত ছিলো এবং সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিতে গিয়ে নিখোঁজ হন জামাল খাশোগি। প্রথম দিকে সৌদি সরকার অস্বীকার করলেও, পরে সৌদির পক্ষ থেকে কনস্যুলেটের ভেতরে খাশোগি নিহত হয়েছেন বলে স্বীকার করা হয়।

বিজ্ঞাপন