চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘বঙ্গবন্ধু বাঙালি এবং জাতীয় জীবনে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনেছে’

বিইউপিতে বঙ্গবন্ধুর মহিমান্বিত জীবন তার অবদান নিয়ে কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মহিমান্বিত জীবন এবং তার অবদান শীর্ষক কুইজ প্রতিযোগিতা ২০২১ বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসে (বিইউপি) অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বুধবার প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী বিইউপির বিজয় অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

কুইজ প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আসাদুজ্জমান নূর বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিইউপির উপাচার্য মেজর জেনারেল মোঃ মোশফেকুর রহমান, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. এম আবুল কাশেম মজুমদার এবং বঙ্গবন্ধু চেয়ার, বিইউপি এর প্রফেসর ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন।

আজ বুধবার দুপুরে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ রেজা-উল করিম শাম্মীর সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস-২০২১ উদযাপন উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস্ (বিইউপি) কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

করোনা মহামারির কারণে সীমিতপরিসরে স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করে এসব কর্মসূচি পালন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আসাদুজ্জামান নূর বলেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালি এবং জাতীয় জীবনে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনেছে। বাংলাদেশের ইতিহাস থেকে তাকে বাদ দেওয়ার অপচেষ্টা চালানো হয়েছে কিন্তু সত্যকে কখনই গোপন রাখা যায় না, আর সে কারণেই তিনি বাংলাদেশের ইতিহাসে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী হিসেবে স্বীকৃত।

এ ছাড়া তিনি বিশেষভাবে উল্লেখ করেন যে, শিক্ষার্থীরা যদি বঙ্গবন্ধুর ভাষণ, সংগ্রাম, ত্যাগ এবং মানুষের প্রতি ভালোবাসা ইত্যাদি বিষয়গুলো অনুধাবন করেন, তবে নিজেরাই উপকার পাবেন।

কর্মসূচির মধ্যে অন্যতম আয়োজন ছিল ‘বিইউপির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের পরিচালিত কুইজার্স সোসাইটি ক্লাবের তত্ত্বাবধানে প্রতিযোগিতাটি এ মাসের ৪ তারিখ শুরু হয়ে আজ শেষ হয়।

শিক্ষার্থীদেরকে বঙ্গবন্ধু, তার রাজনৈতিক দর্শন ও সংগ্রামী চেতনা সম্পর্কে সম্যক ধারণা প্রদানের উদ্দেশ্যে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

দু সপ্তাহব্যাপী এই প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রায় এক হাজার পাঁচ’শ প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে। এরমধ্যে ২৫ জন প্রতিযোগী সেমিফাইনালে এবং ১০ জন প্রতিযোগী গ্রান্ডফিনালে উত্তীর্ণ হন।

ফ্যাকাল্টি অব সিকিউরিটি অ্যান্ড স্ট্রাটেজি স্টাডিজ এর কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত গ্রান্ডফিনালে পাঁচ জন প্রতিযোগী চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হন। পাঁচ জন বিজয়ীদের মধ্যে এক জন বিজয়ী আদমজী ক্যান্টঃ কলেজ থেকে এবং চার জন বিজয়ী বিইউপির শিক্ষার্থী।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহনকারী শিক্ষার্থী, আমন্ত্রিত অতিথি, বিইউপির উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।