চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ

আসছে নতুন বছরের ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সফর করবে টিম টাইগার্স, জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী। তিন ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজটি হওয়ার কথা ছিল এবছরের সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে। করোনাভাইরাসের কারণে দুদেশের ক্রিকেট বোর্ড আলোচনা করে স্থগিত করে সেটি।

২০২১ সালের ক্রিকেট ক্যালেন্ডার অনুসরণের পাশাপাশি স্থগিত হওয়া হোম সিরিজও আয়োজনের ব্যাপারে ইতিবাচক নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। যে কারণে নতুন বছরের শুরুর দিকেই বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানাতে উদ্যোগী তারা।

বিজ্ঞাপন

শুধু বাংলাদেশ নয়, পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আগামী বছর সফরে নেবে কিউইরা। বিসিবি সিইও জানালেন, ‘নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড যে চারটা সিরিজের কথা বলেছে, তার মধ্যে একটা আমাদের সফর রয়েছে। এটা সামনের বছর ফেব্রুয়ারির দিকে হবে, সেভাবেই পরিকল্পনা রয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

করোনায় এবছর নিউজিল্যান্ডের বাংলাদেশ সফরও স্থগিত হয়। আগস্ট-সেপ্টেম্বরে কিউইদের বিপক্ষে দুটি টেস্ট খেলার কথা ছিল টাইগারদের। সিরিজটি আগামী বছরের মাঝামাঝি সময়ে আয়োজনের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন নিজাম উদ্দিন। করোনাকালে স্থগিত হওয়া বাংলাদেশের অন্য সিরিজগুলোও আসছে বছরে হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী তিনি।

‘আমাদের চারটা সিরিজ স্থগিত হয়েছে। অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। এর বাইরে একটি টেস্ট বাকি ছিল, পাকিস্তানের সাথে। যেহেতু মাত্র একটি টেস্ট, আমাদের অল্প সময়ের একটা উইন্ডো দরকার হবে। এটা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সাথে আলোচনা করে ঠিক করব আমরা। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের সাথেও আমাদের বোঝাপড়া হয়েছে, আগামী বছর মাঝামাঝি সময়ে আমরা সিরিজটি নিশ্চিত করবো।’

‘শ্রীলঙ্কার সাথে সিরিজটি চূড়ান্তই। এর বাইরে অস্ট্রেলিয়া ও আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের সাথে আলাপ আলোচনা চলছে। আমরা চেষ্টা করবো অস্ট্রেলিয়া সিরিজটি যেকোনো সুবিধাজনক সময়ে করার। আসলে আমরা তৈরি থাকলেই তো হবে না, অস্ট্রেলিয়ার মতো একটা বড় দলের ফাঁকা সময়েরও ব্যাপার আছে।’

‘নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই সিরিজটি কনফার্ম করতে হবে, আইসিসির যে নির্ধারিত সময়সীমা আছে। আয়ারল্যান্ডে ওয়ানডে খেলা, সেক্ষেত্রে আইসিসির একটা সময়সীমা বর্ধিত করার পরিকল্পনা রয়েছে। সেই বর্ধিত সময়ের মধ্যেই আমরা আশা করছি হয়তবা শেষ করতে পারবো।’