চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিজেদের তৈরি আইএস জঙ্গিকে হত্যা করেছে যুক্তরাষ্ট্র: ইরান

জঙ্গি সংগঠন আইএস’র শীর্ষ নেতা আবু বকর আল বাগদাদিকে হত্যার ঘটনায় ইরান বলেছে, নিজেদের তৈরি জঙ্গিকেই হত্যা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। আইএস মার্কিন প্রশাসনের বানানো জঙ্গি সংগঠন বলেও দাবি তেহরানের।

রোববার এ নিয়ে হোয়াইট হাউজে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেয়া ভাষণের প্রতিক্রিয়ায় দেয়া বিবৃতিতে ইরান এ কথা বলে।

বিজ্ঞাপন

দেশটির তথ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ আজারি-জাহরোমি রোববার বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি বাগদাদিকে তারা নিজেরাই হত্যা করেছে। এ অভিযান বড় কিছু নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

অন্যদিকে ইরানের মুখপাত্র আলী রাবেই এক টুইটবার্তায় বলেছেন, বাগদাদীর মৃত্যু মানেই দায়েশের (আইএস নামের আরবি রূপ) জঙ্গিবাদের সঙ্গে লড়াইয়ের সমাপ্তি নয়। এটা শুধুই একটি অধ্যায়ের পরিসমাপ্তি। আইএস এখনো ছড়াচ্ছে এবং এর প্রমাণও আছে।

বিজ্ঞাপন

মার্কিন অভিযানে বাগদাদির মৃত্যুতে বিশ্বের নিরাপত্তা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে বলে হোয়াইট হাউজে রোববারের ভাষণে দাবি করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

তবে এ অভিযানের কৃতিত্ব দাবি করছে ইরাক ও কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস। ইরাকের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি, দীর্ঘ এক বছর বাগদাদির গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করে মার্কিন বাহিনীকে তার সঠিক অবস্থান জানিয়েছে তাদের গোয়েন্দা বাহিনী। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তারা যৌথ অভিযান চালিয়ে বাগদাদিকে হত্যা করতে সক্ষম হয় বলেও দাবি তাদের।

প্রায় একই রকম দাবি করেছে সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস। তাদের দাবি, বাগদাদির অবস্থান জানিয়ে অভিযানে মার্কিন বাহিনীকে সহায়তা করেছিলেন তাদের গোয়েন্দারা।

অভিযানে অংশ না নিলেও একে স্বাগত জানিয়েছে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, তুরস্ক ও ইসরায়েল। জঙ্গিবাদবিরোধী অভিযানে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে একসাথে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন এসব দেশের নেতারা।

২০১১ সালে আইএস নেতা বাগদাদিকে সন্ত্রাসী চিহ্নিত করে তার সন্ধান দেয়ার বিনিময়ে ১ কোটি ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছিল যুক্তরাষ্ট্র। ২০১৭ সালে এর পরিমাণ বাড়িয়ে আড়াই কোটি ডলার করে মার্কিন প্রশাসন।

Bellow Post-Green View