চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তীব্র গরম ক’দিন থাকতে পারে?

আকাশে সাদা মেঘের ভেলা, বাতাসে কাশফুলের ঘ্রাণ শীতের আগমনী বার্তা নিয়ে এলেও প্রকৃতিতে তার ছোঁয়া নেই বিন্দুমাত্র। গরমের সাথে পাল্লা দিয়ে বাতাসের অতিরিক্ত আর্দ্রতা বাড়ায় অস্বস্তি উঠেছে চরমে। বিশেষ করে তীব্র গরমে রাজধানীবাসীর যেন নাজেহাল অবস্থা। তবে এই গরম ঠিক কবে নাগাদ কমবে তা বলতে পারছে না খোদ আবহাওয়া অফিস।

গত কয়েকদিনের গরমে বিপর্যস্ত জনজীবন। অফিস বাসা-বাড়িতে ফ্যান চললেও তা শরীরের ঘাম শুকাতে ব্যর্থ। দিন শেষে সূর্যের বিদায়ের পর রাতেও কমছে না গরমের মাত্রা। ছোট শিশু থেকে শুরু করে বয়োবৃদ্ধ সকলেরই প্রাণ ওষ্ঠাগত। আর তাই সবার মুখেই এখন ঘুরে ফিরে এক প্রশ্ন: ‘কবে মুক্তি মিলবে এই গরম থেকে?’

বিজ্ঞাপন

নাতিশীতোষ্ণ ঋতু শরতে এই তীব্র গরমের কারণ কী? এমন প্রশ্নের জবাবে আবহাওয়াবিদ নিঝুম রোকেয়া চ্যানেল আই অনলাইন-কে বলেন: ‘এ বছর বর্ষাকালে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ কম হওয়ায় গরম পড়ছে বেশি। এছাড়া বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণও তুলনামূলকভাবে বেশি।’

বিজ্ঞাপন

গত কয়েকদিন ধরে দিন ও রাতের তাপমাত্রার তারতম্য তুলনামূলক কম উল্লেখ করে এই আবহাওয়াবিদ বলেন: দিনের বেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বিরাজ করছে, ঠিক তেমনই রাতেও এখন সর্বোচ্চ তামপাত্রা পড়ছে। এ কারণে রাত ও দিনের তাপমাত্রার মধ্যে তেমন পার্থক্য অনুভূত হচ্ছে না। এখন পর্যন্ত ঠিক বলা যাচ্ছে না কতদিন পর্যন্ত এমন গরম থাকবে।এশিয়া-পাকিস্তান-তাপমাত্রা

আবহাওয়া অফিস বলছে: মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর কম সক্রিয় ও উত্তর বঙ্গোপসাগরে তা দুর্বল অবস্থায় রয়েছে। তবে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেলেও রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকবে। বুধবার সকালে ঢাকায় বাতাসের আর্দ্রতা ছিলো ৮৫ শতাংশ, যা স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি।

বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বিরাজ করছে যশোরে ৩৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দ্বিতীয় সর্বেোচ্চ তাপমাত্রা বিরাজ করছে চুয়াডাঙ্গায় ৩৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা শ্রীমঙ্গলে ২২ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

Bellow Post-Green View